নীলফামারী র্যাবের অভিযানে ফুলবাড়িতে ০৪ কেজি গাঁজা উদ্ধার, দুই মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার

মিজানুর রহমান মিলন, স্টাফ রিপোর্টারঃ
র্যব-১৩ নীলফামারী ক্যাম্পের সদস্যরা মাদক বিরোধী অভিযান চালিয়ে চার কেজি গাঁজা উদ্ধার করেছে। এসময় দুই মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে তারা। জব্দ করা হয়েছে মাদক পরিবহনের কাজে ব্যবহৃত মোটরসাইকেল ও তিনটি মোবাইল ফোন ও মাদক বিক্রয়ের টাকা। 

গতকাল শনিবার বিকেলে দিনাজপুর জেলার ফুলবাড়ি উপজেলার ৩ নং কাজিহাল ইউনিয়নের পুকুরীহাট গ্রামে ওই অভিযান পরিচালনা করা হয়। গ্রেফতারকৃত মাদক ব্যবসায়ীরা হচ্ছে ফুলবাড়ি উপজেলার মুরারিপুর এলাকার মৃত খলিলুর রহমানের পুত্র মো. মিন্টু হোসেন(২৯) ও মো. ছমির উদ্দিনের পুত্র মো. রুবেল (২৫)। এ ব্যাপারে ফুলবাড়ি থানায় একটি মামলা হয়েছে। গতকাল শনিবার রাতে র্যাব--১৩ নীলফামারী ক্যাম্পের অফিসিয়াল প্রেসবিজ্ঞপ্তিতে ওই তথ্য জানানো হয়েছে।

প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে শনিবার বিকেলে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে নীলফামারী র্যাব-১৩, সিপিসি-২ এর সহকারি পরিচালক ও ভারপ্রাপ্ত কোম্পানী অধিনায়ক মো. হালিউজ্জামানের নেতৃত্বে র্যাবের অভিযানিক দলের সদস্যরা উল্লিখিত এলাকায় অভিযান চালায়। 

এসময় তারা পুকুরীহাট গ্রামে জনৈক আবেদুল আলীর বাড়ীর সামনে পাঁকা রাস্তার উপর গাঁজার চালান হাতবদলের সময় দুই মাদক ব্যবসায়ী মিন্টু হোসেন ও রুবেলকে হাতেনাতে গ্রেফতার করেন। তাদের কাছ থেকে উদ্ধার করা হয় চার কেজি গাঁজা। জব্দ করা হয় মাদক পরিবহনের কাজে ব্যবহৃত মোটরসাইকেল, ৩ টি মোবাইল ফোন ও গাঁজা বিক্রির নগদ ৮০০ টাকা। র্যাবের অভিযানের সময় এলাকাবাসী জানায়, গ্রেফতারকৃত দুজনই চিহৃিত মাদক ব্যবসায়ী।

গ্রেফতারকৃত মিন্টু ও রুবেলও মাদক ব্যবসার কথা স্বীকার করে। উল্লেখ্য র্যাব প্রতিষ্ঠা থেকেই সমাজের বিভিন্ন অপরাধের রহস্য উদঘাটন, জঙ্গীবাদ দমন, অপরাধীদের গ্রেফতার, ও আইনশৃংখলা পরিস্থিতির সার্বিক উন্নয়নে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। এছাড়া অপহরণ, মাদক উদ্ধার, অপহৃত ভিকটিম উদ্ধার, ভেজাল বিরোধী অভিযান, ভেজাল ঔষধ প্রস্তুতকারক ও ব্যবসায়ী এবং বিভিন্ন প্রতারক চক্রকে গ্রেফতারসহ দেশের শীর্ষ সন্ত্রাসীদের গ্রেফতার করতে নিয়মিত অভিযান পরিচালনা করে আসছে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য