কিডনি রোগে আক্রান্ত সাংবাদিকের ছেলের চিকিৎসার দায়িত্ব নিলেন মন্ত্রীর ছেলে


হাসানুজ্জামান হাসান, লালমনিরহাটঃ
 

লালমনিরহাট জেলার সাংবাদিক জিন্নাতুল ইসলাম জিন্নার অসুস্থ্য ছেলে কিডনি রোগে আক্রান্ত হয়ে ঢাকা কিডনি হাসপাতালে ভর্তি হন। বিষয়টি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে জানতে পেরে চিকিৎসার দায়িত্ব নিয়েছেন সমাজকল্যাণ মন্ত্রী নুরুজ্জামান আহমেদের ছেলে প্রভাষক রাকিবুজ্জামান আহমেদ।

সোমবার (১৫ মার্চ) দুপুরে সাংবাদিক জিন্নার ছেলে সানবিন আহমেদ সাফল্যের  চিকিৎসার জন্য জিন্নাতুল ইসলাম জিন্নার নামে ইসলামী ব্যাংকের মাধ্যমে ৫০ হাজার টাকা প্রদান করেন। সাংবাদিক জিন্নাতুল ইসলাম জিন্না প্রতিদিনের সংবাদ পত্রিকায় লালমনিরহাট জেলা প্রতিনিধি হিসেবে কর্মরত। তার ছেলে সানবিন আহমেদ সাফল্য লালমনিরহাট পুলিশ লাইন স্কুলের অষ্টম শ্রেণির ছাত্র।

সাংবাদিক জিন্নার ছোট ছেলে সানবিন আহমেদ সাফল্য কিছু দিন ধরে কিডনি রোগে আক্রান্ত হয়ে ঢাকা কিডনি হাসপাতালে ভর্তি হন। ছেলের ব্যয় বহুল চিকিৎসায় জীবনের সঞ্চিত অর্থ খরচ করেও পুর্নাঙ্গ সুস্থ করাতে পারেনি সাংবাদিক জিন্না। চিকিৎসার খরচ যোগাতে অনেকটা হতাশ হয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছেলের সুস্থতা কামনা করে দোয়া চান তিনি। ফেসবুকে এমন স্ট্যাটাস দেখে সাংবাদিক জিন্নাকে ফোন করে ছেলের চিকিৎসার খোঁজ খবর নেন সমাজকল্যাণ মন্ত্রী নুরুজ্জামান আহমেদের ছেলে প্রভাষক রাকিবুজ্জামান আহমেদ। পরে তার ছেলের চিকিৎসার জন্য জিন্নাতুল ইসলাম জিন্নার নামে ইসলামী ব্যাংক একাউন্ড এ ৫০ হাজার টাকা প্রদান করেন ও  চিকিৎসার সকল দায়িত্বও গ্রহণ করেন।

সাংবাদিক জিন্না বলেন, জীবনের সঞ্চিত অর্থ কিডনি রোগে আক্রান্ত ছেলের পরীক্ষা নিরীক্ষা করতেই শেষ হয়েছে। তার চিকিৎসায় দৈনিক প্রায় ২৫ হাজার টাকার মত খরচ লাগে। ঋণ করে ছেলের চিকিৎসা শুরু করি। হঠাৎ মন্ত্রীর ছেলে রাকিবুজ্জামান আহমেদ ফোন করে ছেলের চিকিৎসার খোঁজ খবর নেন এবং ৫০ হাজার টাকার আমার একাউন্ডে পাঠান ও  চিকিৎসার সকল দায়িত্বও গ্রহণ করেন।

সমাজকল্যান মন্ত্রী নুরুজ্জামান আহমেদের ছেলে প্রভাষক রাকিবুজ্জামান আহমেদ জানান, এর আগে অনেক অসহায় মানুষকে চিকিৎসার জন্য বিভিন্ন ভাবে অর্থ দিয়ে সাহায্য করেছি। দোয়া করবেন যেন অসহায় মানুষের পাশে দাড়াতে পারি।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য