আসন্ন শিবরামপুর ইউপি নির্বাচনে আওয়ামীলীগের সাম্ভাব্য চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী সত্যজিৎ রায় কার্তিকের গণসংযোগ


মোঃ তোফাজ্জল হোসেন, বীরগঞ্জ (দিনাজপুর)প্রতিনিধিঃ 

চলতি বছরের মার্চ মাসে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন হতে পারে বলে জানিয়েছে নির্বাচন কমিশন(ইসি)। বীরগঞ্জ উপজেলা নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা গেছে, চলতি বছরের ২২ মার্চ থেকে ৪জুন মোট ছয় ধাপে সারা দেশব্যাপী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। 

এরই মধ্যে সকল  ইউনিয়নগুলোতে বিভিন্ন প্রার্থীদের নতুন বছরের ক্যালেন্ডার, পোস্টার, ফেস্টুন ও সাইনবোর্ডে ছেয়ে গেছে। তবে দিনাজপুরের বীরগঞ্জ উপজেলার ১১ টি ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনকে সামনে রেখে সম্ভাব্য প্রার্থীরা ইতিমধ্যেই শুরু করেছেন নির্বাচনী প্রচার প্রচারণা। প্রার্থীদের অনেকেই ভোটারদের সাথে কুশল বিনিময়,উঠান বৈঠক, সভা-সমাবেশ ও গণসংযোগে অংশ নেয়াসহ বিভিন্ন সামাজিক অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে নির্বাচনী উপস্থিতির বিষয়ে জানান দিচ্ছেন । সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও ভোটারদের কাছে নিজেদের সার্বিক দিক তুলে ধরার চেষ্টায় ও দলীয় মনোনয়ন পেতে জেলা উপজেলা থেকে  কেন্দ্রীয় নেতাদের সাথে লবিং শুরু করেছেন অনেকেই।

উপজেলার ১নং শিবরামপুর ইউনিয়ন পরিষদের আসন্ন নির্বাচনে সম্ভাব্য চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী ৬ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত  সাধারণ সম্পাদক, শিবরামপুর ইউনিয়ন হিন্দু- বৌদ্ধ- খ্রীষ্টান ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক এবং সাহাডুবি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সভাপতি সত্যজিৎ রায় কার্তিক এলাকায় ব্যাপক গণসংযোগ চালিয়ে যাচ্ছেন। তিনি ৫ অক্টোবর ১৯৮৩ সালে  শিবরামপুরের সাহাডুবি গ্রামে জন্মগ্রহন করেন। পিতা স্বর্গীয়  গৌরহরি রায় ও মাতা জ্যোৎস্না রায়ের ৪ কন্যা ১ ছেলের মধ্যে সত্যজিৎ রায় কার্তিক ৪র্থ। 

ইতিমধ্যে অত্র ইউনিয়নের  চায়ের দোকান ও বিভিন্ন পাড়া- মহল্লায় সর্বস্তরের ভোটারদের মধ্যে চলছে নিজের পছন্দ- অপছন্দের প্রার্থী নিয়ে আলোচনা- সমালোচনা । শিবরামপুর ইউনিয়নের বিভিন্ন ওয়ার্ডের পাড়া - মহল্লা ঘুরে ভোটারদের মতামত জানতে চাইলে নানান বয়সের অধিকাংশ ভোটাররাই জানান, সত্যজিৎ রায় এই এলাকার  আওয়ামীলীগের একজন একনিষ্ঠ কর্মী ও সমর্থক। মৃদুভাসি,সৎ চরিত্রের অধিকারি কার্তিক করোনা মহামারী পরিস্থিতিতে ত্রান-সাহায্য বিতরনের পাশাপাশি সার্বক্ষণিক সর্বস্তরের মানব সেবায় নিয়োজিত রয়েছেন এবং এলাকার বিভিন্ন সামাজিক কাজে নিয়োজিত থেকে ব্যাপকভাবে প্রশংসনীয় ও পরিচিতি লাভ করেছেন। তাই দলীয় নৌকা  প্রতিক পেলে শিবরামপুরের সার্বিক উন্নয়নে সত্যজিৎ রায় কার্তিকের সাথে থেকে আসন্ন ইউপি নির্বাচনে জয়যুক্ত করতে সেচ্ছায় নির্বাচনী প্রচার প্রচারণায় অংশ নিয়ে সকল মানুষকে ঐক্যবদ্ধ করার দৃঢ় আশাবাদ ব্যক্ত করেন তারা। 

এ ব্যাপারে তরুণ প্রজন্মের অহংকার  সত্যজিৎ রায় কার্তিক বলেন, আমার স্বর্গীয় পিতা গৌর হরি রায় ১৯৭১ সালের স্বাধীনতার পর হতে আমরন প্রায় ৩ যুগ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি থেকে এই এলাকায় দলকে সুসংগঠিত করেছেন ও তৎকালীন  সরকার বিরোধী দলীয় আন্দোলন-সংগ্রামে রাজপথে নেতৃত্ব দিয়েছেন। আমিও ছাত্রলীগের রাজনীতি থেকে শুরু করে  অদ্যবধী দলের সুনাম অক্ষুন্ন রেখে আসছি এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে ও উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে  দলীয় মনোনায়ন প্রত্যাশা করছি। দলীয় মানোনায়নে নৌকা মার্কা পেয়ে চেয়ারম্যান হতে পারলে জনগনকে সাথে নিয়ে করোনা মহামারী মোকাবিলাসহ সন্ত্রাস,মাদক মুক্ত ইউনিয়ন,শিক্ষিত জাতি গঠনকরে অবহেলিত শিবরামপুরকে  আলোকিত ডিজিটাল ইউনিয়ন হিসেবে গড়ার লক্ষ্যে তিনি সকলের দোয়া, আশির্বাদ ও সহযোগিতা কামনা করেছেন।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য