জলঢাকায় জমির ফসল নষ্ট করার জেরে বাড়ি ছাড়া একটি হিন্দু পরিবার


আব্দুল মালেক, বিশেষ প্রতিনিধিঃ 

জমির ফসল নষ্ট করার প্রতিবাদ করতে গিয়ে গ্রাম্য পুলিশের দাপটে বাড়ি ছাড়া একটি হিন্দু পরিবার। ঘটনাটি নীলফামারীর জলঢাকা উপজেলার শিমুলবাড়ী ইউনিয়নের ০১ নং ওয়ার্ড বাঁশদাহ গ্রামের অধার চন্দ্রের জামাইসহ দুই ছেলে গোপাল চন্দ্র ও ধরঞ্জয় চন্দ্র প্রায় কয়েক সপ্তাহ ধরে বাড়ি ছাড়া। 

উল্লেখ্য যে গত ১৫ ডিসেম্বর বিকেলে ধানের খড় বোঝাই একটি নছিমন ভ্যান ধরঞ্জয়ের জমির লাগানো কপির ক্ষেতে পড়লে বেশ কয়েকটি কপির গাছের ক্ষতি হয়। এনিয়ে নছিমন চালকের সাথে বাকবিদ্বন্ডা শুরু হয়। এরই এক পর্যায় গ্রাম্য পুলিশ বিষ্ণু চন্দ্র চলে আসে এবং অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করেন বলে অধার চন্দ্রের পরিবার জানায়। এতে ক্ষিপ্ত হয় ফসলের মালিক ধরঞ্জয় চন্দ্র। উভয় পক্ষের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনাও ঘটে। তবে ঘটনার সময় উপস্থিত ছিলেন না বলে দাবি পলাতক থাকা গোপাল চন্দ্রের। সে মোবাইল ফোনে জানায়, গ্রাম পুলিশ বিষ্ণু চন্দ্রের সাথে আমার পূর্ব শত্রুতা ছিলো। 

এরেই জের ধরে আমাদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা করে এবং লোকজন দিয়ে ভয়ভীতি দেখিয়ে মোটা অংকের টাকা দাবি করে। টাকা দিতে না চাইলে পুলিশ দিয়ে বাড়িতে তল্লাশী চালায়। আমরা পুলিশের ভয়ে ঘটনার দিন থেকে পলাতক রয়েছি। তাঁরা নির্দোষ, সঠিক তদন্ত সাপেক্ষে ন্যায় বিচারের দাবি জানায় গোপাল চন্দ্র।

নাম না বলা সর্তে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, কাড়িয়ার গাড়ী জমিতে পড়লে বেশ কয়েকটি কপির গাছের ক্ষতি হয়েছে। নছিমন চালক ক্ষতি পুষিয়ে দিতে চেয়েছিল, কোন কথা না শুনে তার উপর চড়াও হন ধরঞ্জয়। কিছুক্ষন পর এলাকার চকিদার এলে তার উপরেও চড়াও হয়ে গালমন্দ করেছে তারা, কিন্তু কোন প্রকার হাতাহাতি হয়নি বলে জানান প্রত্যক্ষদর্শীরা। 

গ্রাম্য পুলিশ বিষ্ণু চন্দ্র জানান, মীরগঞ্জ পুলিশ ফাড়ির এএস আই রাশেদ স্যারের ফোন পেয়ে আমি ঘটনাস্থলে যাই। ধরঞ্জয়ের বড় ভাই গোপাল চন্দ্র একটি মামলার ওয়ারেন্টভুক্ত আসামী ছিলো, তাকে পুলিশের কাছে ধরিয়ে দেই। এই শত্রুতার জেরে ঘটনাস্থলে যাওয়ার সাথেই আমাকে ধাওয়া করে এবং গায়ে থাকা চকিদারী পোশাকটি টানাহেচড়া করে ছিরে ফেলে। 

এ ঘটনার বিষয়টি তার উর্দ্ধতন কতৃপক্ষকে জানালে তারা থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করতে বলে এ ব্যাপারে ইউপি চেয়ারম্যান হামিদুল হক মুঠোফোনে জানান, বাদি-বিবাদী আমার কাছে ধরা দেয় নাই। শুনলাম মামলা হয়েছে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য