পরিবহন শ্রমিকদের চাঁদাবাজ আখ্যায়িত করে শ্রমিকনেতা বাদলের বিরুদ্ধে যড়যন্ত্রের প্রতিবাদে সৈয়দপুরে শ্রমিক সমাবেশ


মিজানুর রহমান মিলন সৈয়দপুরঃ

নীলফামারী জেলা বাস মিনিবাস মালিক সমিতি ও নীলফামারী জেলা সড়ক পরিবহন মালিক গ্রুপ কর্তৃক পরিবহন শ্রমিকদের চাঁদাবাজ আখ্যায়িত করে ক্লীন ইমেজের প্রখ্যাত শ্রমিকনেতা আখতার হোসেন বাদলের বিরুদ্ধে যড়যন্ত্রে লিপ্ত থাকার অভিযোগে প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে নীলফামারী জেলা বাস মিনিবাস শ্রমিক ইউনিয়ন। 

গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে সৈয়দপুর বাস টার্মিনাল চত্বরের ট্রাফিক মোড়ে ওই শ্রমিক সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন সংগঠনটির কার্যকরি  সভাপতি মো. হারুন উর রশিদ। বক্তব্য বলেন নীলফামারী জেলা বাস মিনিবাস শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারন সম্পাদক মো.  আলতাফ হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক মো. মমতাজ আলী, দপ্তর সম্পাদক মো. এফাজ উদ্দিন সরকার,প্রচার সম্পাদক মো.  আব্দুল জলিল,সহ সম্পাদক ও জলঢাকা উপ কমিটির সভাপতি মো. আব্দর রশিদ, নীলফামারী উপ কমিটির ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক মো. আফজাল হোসেন, ডোমার উপ কমিটির সাধারন সম্পাদক মো. সেলিম রেজা, ডিমলা উপ কমিটির সভাপতি মো. হাবিবুর রহমান লোহানী ও নীলফামারী জেলা মাইক্রো  কার পিকআপ শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারন সম্পাদক মো.  মানিক মিয়া। 

সমাবেশে পরিবহন সেক্টরের জনপ্রিয় শ্রমিক নেতা বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ও রংপুর বিভাগীয় কমিটির সভাপতি, নীলফামারী জেলা বাস মিনিবাস শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি সাবেক পৌর মেয়র আখতার হোসেন বাদলের বিরুদ্ধে গভীর ষড়যন্ত্রের প্রতিবাদ জানিয়ে নীলফামারী জেলা বাস মিনিবাস মালিক সমিতি ও নীলফামারী জেলা সড়ক পরিবহন মালিক গ্রুপের নেতৃবৃন্দের উদ্দেশ্যে বলেন পরিবহন শ্রমিকরা চাঁদাবাজি করেনা। 

তারা সকল শ্রমিকের স্বার্থে নিয়ম মেনে সার্ভিস চার্জ গ্রহণ করে। বরং মালিকদের উভয় সংগঠন গোটা জেলায় চাঁদাবাজিতে লিপ্ত রয়েছে। প্রতিটি পয়েন্টে তাদের লোক চাঁদাবাজি করে আসছে। আর দোষ দেয়া হচ্ছে শ্রমিকদের। বদনাম করা হচ্ছে শ্রমিক সংগঠনের। বক্তারা বলেন পরিবহন শ্রমিকরা ঝুঁকি নিয়ে সড়কে গাড়ি চালায়, কোন সমস্যা,

হলে তারাই সমাধান করে। তখন কোন মালিকদের দেখা যায়না। অথচ মালিকরাই শ্রমিকদের চাঁদাবাজ হিসেবে বদনাম করছে। তারা বলেন সামনে সৈয়দপুর পৌরসভা নির্বাচন। আর ওই নির্বাচনকে সামনে রেখে ক্লীন ইমেজের প্রখ্যাত শ্রমিক নেতা আখতার হোসেন বাদল যাতে প্রার্থী হতে না পারে সেজন্য বিরোধী একটি মহলের ইন্ধনে   

জেলার দুটি মালিক সংগঠন এক হয়ে তাঁর বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালাচ্ছে। সমাবেশে বক্তারা হুশিয়ারি উচ্চারন করে বলেন  শ্রমিক নেতা আখতার হোসেন বাদলসহ কোন শ্রমিকের বিরুদ্ধে যদি অপপ্রচার চালানো হয় তাহলে সকল পরিবহন শ্রমিক রাস্তায় নেমে আসবে। সমাবেশে সকল যড়যন্ত্র প্রতিরোধে আগামিতে কঠোর কর্মসূচি দেয়া হবে বলে হুশিয়ারি দেন তারা।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য