রংপুরে সংবাদ প্রকাশের জেরে সন্ত্রাসী হামলার শিকার গণমাধ্যমকর্মী


শরিফা বেগম শিউলী 
রংপুর প্রতিনিধিঃ 

রংপুরে মাদকসহ বিভিন্ন অপরাধমূলক কর্মকান্ডের সংবাদ প্রকাশ করায় সন্ত্রাসী হামলার শিকার হয়েছে সংবাদ ও মানবাধিকার কর্মী বেলায়েত হোসেন বাবু। এ ঘটনার ৪৮ ঘণ্টা পার হলেও এখনো ধরা ছোয়ার বাহিরে রয়েছে হামলাকারীরা। পুলিশ বলছে, আহত সংবাদকর্মী মামলা দায়ের করেছেন। আসামীদের গ্রেফতারে চেষ্টা চলছে।

জানা গেছে, গত মঙ্গলবার রাত পৌনে দশটায় নগরীর ঠিকাদারপাড়ায় মেসার্স মায়ের দোয়া আয়রন ষ্টোরের কাছে সন্ত্রাসী হামলার শিকার হন বেলায়েত হোসেন বাবু। হামলাকারীদের অনেকেই মাদক সেবন ও মাদক কারবারের সঙ্গে জড়িত। তাদেরকে নিয়ে বিভিন্ন সময় পত্রপত্রিকায় সংবাদও হয়। 

এদিকে ওই হামলার ঘটনার পরদিন বুধবার রংপুর মেট্রো কোতোয়ালী থানায় ৮ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত আরও ৫/৬ জনকে আসামি করে একটি মামলা দায়ের করে হামলার শিকার হওয়া সংবাদকর্মী। হামলার শিকার হয়ে গুরুত্বর আহত অবস্থায় রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন সংবাদ ও মানবাধিকার কর্মী বেলায়েত হোসেন বাবু। 

তাকে সেখানে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। আহত বেলায়েত বাবু জানান,। গত মঙ্গলবার (১৭ নভেম্বর) রাতে নগরীর ঠিকাদারপাড়ায় পূর্বপরিকল্পনা থেকে তাকে আটক করে লাঠিসোডা, রড ও পাইপসহ দেশীয় অস্ত্র নিয়ে সংঘবদ্ধভাবে হামলা চালানো হয়েছে। হামলার সময়ে এনামুল নামে একজনের হুকুমে অন্যরা এলোপাতাড়ি ভাবে তাকে মারপিট করে। 

হত্যার উদ্দেশ্যে সুজন শেখ ও সুমন শেখ পাইপ ও রড দিয়ে শরীরের বিভিন্নস্থানে আঘাত করে। এতে হাত, পা, মাথা ও ঘাড়সহ শরীরের বিভিন্ন স্থান জখম হয়েছে। ওই সময় আহত অবস্থাতেই প্রাণ ভয়ে সেখান থেকে পালিয়ে শাপলা চত্বরের দিকে যান। পরে তার সহকর্মীরা তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করান। 

তিনি আরও জানান, হামলার সাথে জড়িতরা মাদক সেবন ও ব্যবসার সাথে জড়িত। তাদের নিয়ে বিভিন্ন সময়ে সংবাদ প্রকাশ করেছিলেন এর জের ধরেই তারা সংঘবদ্ধভাবে এই হামলা চালিয়েছে। ওই ঘটনার ৪৮ ঘণ্টা পার হলেও আসামিরা গ্রেফতার না হওয়াতে নিজের ও পরিবারের নিরাপত্তা নিয়ে সংশয় প্রকাশ করে দ্রুত আসামিদের গ্রেফতার দাবি করেন।

এব্যাপারে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা সাব-ইন্সপেক্টর মামুনুর রশিদ জানান, বুধবার রাতে মামলা দায়ের হয়েছে। আমরা ঘটনাটি খতিয়ে দেখে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিবো।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য