বড়পুকুরিয়া তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রে নিয়োগের দাবীতে বিক্ষোভ ও মানববন্ধন

চৌধুরী নুপুর নাহার তাজ দিনাজপুরঃ 

দিনাজপুরের বড়পুকুরিয়া তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রে নিয়োগের দাবীতে বিক্ষোভ ও মানববন্ধন করেছেন তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের বঞ্চিত আন্দোলনরত শ্রমিকরা। মানবন্ধনে আগামী ২৮ অক্টোবর পর্যন্ত তাপ বিদ্যুৎ কর্তৃপক্ষকে আল্টিমেটাম দিয়ে কঠোর আন্দোলনের হুশিয়ারী দেন, আন্দোলন পরিচালনা কমিটির সাধারন সম্পাদক আবু সাইদ।

বৃহস্পতিবার সকাল ১০ থেকে বেলা ১১ পর্যন্ত, বড়পুকুরিয়া তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের প্রধান ফটকের সামনে এক ঘন্টা ব্যাপী মানববন্ধন করে এই আল্টিমেটাম দেন আন্দোলনরত শ্রমিকরা ।

মানববন্ধনে আন্দোলন পরিচালনা কমিটির সভাপতি হাবিবুর রহমান বলেন, একটি চাকুরীর জন্য বড়পুকুরিয়া তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের বঞ্চিত ১৪৩জন শ্রমিক গত ২০১৭ সাল থেকে আন্দোলন করে আসছে। তিনি বলেন, আন্দোলনরত শ্রমিকদের নিয়োগ দেয়ার জন্য বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড (বিউবি) এবং বিদ্যুৎ ও জ্বালানী মন্ত্রনালয় আদেশ জারী করলেও তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্র কর্তৃপক্ষ অদৃশ্য কারনে তাদেরকে নিয়োগ না দিয়ে তাল বাহনা করছে। 

তিনি অভিযোগ করে বলেন, তাদের (আন্দোলনরত শ্রমিক) এর জন্য বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড (বিউবি) পদসৃষ্টি করলেও তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্র কর্তৃপক্ষ তাদেরকে নিয়োগ না দিয়ে, চিনা ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান হারবীন কোম্পানীতে কর্মরত শ্রমিকদের নিয়োগ দেয়ার ষড়যন্ত্র করছে। তিনি এই ষড়যন্ত্র বন্ধ করে আন্দোলনরত শ্রমিকদের নিয়োগ দেয়ার আহ্বান জানান।

আন্দোলন পরিচালনা কমিটির সাধারন সম্পাদক আবু সাইদ চলতি অক্টোবর মাসের ২৮ তারিখের মধ্যে আন্দোলনরত শ্রমিকদের নিয়োগ দেওয়ার দাবী জানিয়ে বলেন, ২৮ অক্টোবরের মধ্যে নিয়োগ না দেয়া হলে আরো কঠোর আন্দোলন কর্মসূচি দেয়া হবে বলে তিনি আল্টিমেটাম ঘোষনা করেন। 

মানববন্ধন শেষে বড়পুকুরিয়া কয়লা খনি বাজার এলাকায় বিক্ষোভ মিছিল করেন শ্রমিকরা। মানব বন্ধনে আন্দোলনরত শ্রমিক ও তাদের পরিবারের সদস্যগণ অংশগ্রহন করেন। শ্রমিকরা জানায় তাদের আন্দোলন ও মানবতা বিবেচনা করে ২০১৮ সালে বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড় ও বিদ্যুৎ ও জ্বালানী মন্ত্রনালয় আন্দোলনরত ১৪৩জন শ্রমিককে নিয়োগ দেয়ার জন্য পরিপত্র জারী করলেও তাপ বিদ্যুৎ কর্তৃপক্ষ তাদের নিয়োগ না দিয়ে তালবাহনা করছেন। এজন্য তারা আবারো আন্দোলনে নেমেছেন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে বড়পুকুরিয়া তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের প্রধান প্রকৌশলী ওয়াজেদ আলী সরদার জানান, আন্দোলনরত শ্রমিকদের বর্তমানে নিয়োগ দেয়ার জন্য কোন অনুমতি পাওয়া যায়নি। সরকার অনুমতি দিলে নিয়োগের কাজ শুরু করা হবে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য