রঙ্গে রসের রংপুর পানিতে আজ ভরপুর


শরিফা বেগম শিউলী রংপুর প্রতিনিধিঃ

শনিবার ২৬-০৯-২০ইং সন্ধ্যা ০৮টা থেকে রবিবার সকাল ১০টা পর্যন্ত ৪৩৩ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করেছে রংপুর বলেছে আবহাওয়া বিভাগ। যা বর্ষা কালের ২৪ ঘন্টার বৃষ্টিপাতের চেয়ে অনেক বেশী। শরতে বর্ষার মতো ১৪ ঘন্টার টানা বর্ষণে রংপুর নগরীর প্রধান সড়ক, 

বঙ্গবন্ধু মুর‍্যাল,কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার,পাবলিক লাইব্রেরী, শিল্পকলা একাডেমী, টাউনহল,  জাহাজ কোম্পানী মোড়,মুন্সিপারা পাক পাড়া,গুরাতিপাড়া,নুরপুর,সার্কিট হাউজ,স্টেশন রোড প্রধান ডাকঘর,গুপ্তপাড়া,কলেজ রোড়সহ নীচু এলাকার ঘরবাড়িতে বুক সমান ও রাস্তাঘাটে হাটু পানি। 

নগরীর অধিকাংশ দোকানপাটের ভিতরে পানি ঢুকে প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র নষ্ট হয়ে গেছে ।নগরীর কেরানিপাড়া, মুলাটোল, সেনপাড়া,  নুরপুর, হাবিব নগর,কলোনি,গনেশপুর,কামালকাছনা, জুম্মাপাড়া, কুকরুল,চিকলীসহ বিভিন্ন এলাকায় জলাবদ্ধতায় জনদুর্ভোগ বেড়েছে।গুপ্তপাড়া থেকে বল শাহরিয়ার জিম বলেন ১৯৮৮ সালের বন্যাকে ও হার মানিয়েছে আজকের এই বৃষ্টি। 

রংপুরের স্থানীয় লোকজনের দাবি নগরীর ৩৩ টি ওয়ার্ডে ড্রেনের কাজ চলছে কোন কোন ড্রেনের কাজ শেষ হলেও পানি ড্রেনে নামার রাস্তা একনো করে দেওয়া হয়নি এজন্য আরো বেশি জলাবদ্ধতা তৈরী হয়েছে।তাই  আকাশ মেঘাচ্ছন্ন আরো প্রবল বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা আছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় আবাহাওয়া অফিস। ভারী ও রেকর্ড পরিমান বৃষ্টিপাত হলেও রংপুরের তিস্তা,ঘাঘট ও যমুনেশ্বরী নদীর পানি প্রবাহ বিপদ সীমার নীচে দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য