ডিমলায় জাতীয় শোক দিবস পালন

জাহাঙ্গীর রেজা, স্টাফ রিপোর্টারঃ 
সারা দেশের ন্যায় প্রতিবারের মত এবারও ১৫-আগষ্ট শনিবার নীলফামারীর ডিমলা উপজেলা প্রশাসন আয়োজনে যথাযোগ্য মর্যাদায় স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এঁর ৪৫ তম শাহাদাত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস পালন করা হয়েছে।

এ উপলক্ষে উপজেলা পরিষদ চত্বর থেকে একটি শোক র‌্যালী বের হয়ে শহর প্রদক্ষিণ করে এসে বঙ্গ বন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুস্পমাল্য অর্পণ করে উপজেলার পরিষদ চত্ত্বরে এক আলোজনা সভায় মিলিত হয়। 

উপজেলা নির্বাহী অফিসার জয়শ্রী রানী রায়ের সভাপতিত্বে মোহাইমেনুল ইসলাম রনি’র সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, নীলফামারী-১ (ডোমার-ডিমলা) আসনের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব আফতাব উদ্দিন সরকার। বিশেষ অতিথি ছিলেন, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা তবিবুল ইসলাম, ভাইস চেয়ারম্যান বাবু নিরেন্দ্র নাথ রায়, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আয়শা সিদ্দীকা, 

উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আনোয়ারুল হক সরকার মিন্টু, সাবেক (ভারপ্রাপ্ত) সাধারণ সম্পাদক সহিদুল ইসলাম, জেলা পরিষদ সদস্য ফেরদৌস পারভেজ, ডিমলা সরকারী মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ মোকলেছুর রহমান, ডিমলা থানা অফিসার্স ইনচার্জ (ওসি) সিরাজুল ইসলাম প্রমুখ।


অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) অফিসার মীর মোঃ কামাহ তমাল, উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ সেকেন্দার আলী, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা অফিসার ডাঃ সারোয়ার আলম, উপজেলা শিক্ষা অফিসার স্বপন কুমার দাশ, 

উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিসার মেজবাহুর রহমান, উপজেলা প্রাণিসম্পদ অফিসার ডাঃ রেজাউল হাসান, উপজেলা মৎস্য অফিসার শামীমা আক্তার, উপজেলা সেচ্ছা সেবক লীগের নেতা এস.এম ফিরোজ, উপজেলা ছাত্রলীগের আহবায়ক আবু সায়েম সরকারসহ আরো অনেকেই।


আলোচনায় বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছাত্র/ছাত্রী, শিক্ষক-শিক্ষিকা, সামাজিক সাংস্কৃতিক নেত্রীবৃন্দ সহ সকল সরকারী বে-সরকারী কর্মকর্তা-কর্মচারী, জন-প্রতিনিধি, জিও, এনজিও প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

সভা শেষে বাবুরহাট সরকারী মডেল প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিশু-শিক্ষার্থীদের চিত্রাংকন, বঙ্গবন্ধুর ভাষন ও জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবন ও কর্মের উপর রচনা অনলাই ভিক্তিক প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হয়। 

পরে ডিমলা আল-জামিয়াতুল ইসলামিয়া বাইতুল উলুম মাদ্রাসা ও এতিমখানা চত্ত্বরে ফলদ বনজ ও ঔষুধী বৃক্ষ রোপন করে এতিমদের মাঝে উন্নতমানের খাদ্য পরিবেশন করা হয়েছে। 

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য