নীলফামারীতে বন্যার পানিতে তলিয়েছে ৫০ হাজার বৃক্ষচারা, বিপাকে উপজেলা ফরেস্ট বিট

মোঃ সাদিক-উর রহমান শাহ্ (স্কলার) রংপুর ব্যুরোঃ 
২৫ জুন হতে প্রবল বৃষ্টিপাত হওয়ায় উজান থেকে ঢলে আসা বন্যার পানিতে ডুবে মরতে বসেছে নীলফামারী ডিমলা উপজেলার বনবিভাগের বাগানে লাগানো প্রায় ৫০ হাজার ঔষধি গাছের চারাসহ নানান প্রজাতির রোপনকৃত বৃক্ষ। 

উপজেলার বালাপাড়া ইউনিয়নের সুন্দরখাতা মৌজার ১৮ হেক্টর জমিতে ৫০ হাজার বৃক্ষচারা রোপন করে ডিমলা উপজেলা ফরেস্ট বিট (বনবিভাগ)। ২০১৭-১৮ অর্থ বছরে ১০ হেক্টর জমিতে ৩০ হাজার ও ২০১৮-১৯ অর্থ বছর ০৮ হেক্টর জমির মধ্যে ২০ হাজার ঔষধি গাছসহ বিভিন্ন প্রজাতির বৃক্ষরোপণ করে বনবিভাগ। 

এসব রোপনকৃত বৃক্ষের চারা গুলো প্রায় ১০ দিন যাবত বন্যার পানিতে তলিয়ে যাওয়ায় চরম বিপাকে পড়েছে উপজেলার ফরেস্ট বিট অফিসার মোঃ শরিফ উদ্দিন। শনিবার(০৩ জুন) বিকালে সরেজমিনে গেলে দেখা যায়, তিনি নিজেই বন্যার পানিতে নেমে তলিয়ে যাওয়া চারাগাছ গুলোর চারপাশে আটকে পরা আবর্জনা পরিষ্করণ করছেন।

উপজেলা ফরেস্ট বিট অফিসার শরিফ উদ্দিন জানান, বেশকিছু যাবত বন্যার পানিতে তলিয়ে যাওয়া বেশিরভাগ রোপনকৃত চারা ঝুঁকির মধ্যে আছে। কারণ বন্যার পানি ঘাঁটলে সূর্যের তাপে মাটির গরমে অনেক চারা মারাও যেতে পারে। তিনি বলছেন, পানি নেমে যাওয়ার প্রায় ১৫ দিন পর জানা যাবে ক্ষতির পরিমাণ।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য