নীলফামারীতে ক্যান্সার আক্রান্ত ছেলেকে বাচাঁতে বাবার আকুতি

রতন কুমার রায়, স্টাফ রিপোর্টার: 
নীলফামারী সদর উপজেলার লক্ষীচাপ ইউনিয়নের কচুয়া গ্রামের দিন মজুর হরেন্দ্রনাথ রায়ের দ্বিতীয় ছেলে ক্যান্সারে আক্রান্ত ১৬ বছরের কিশোর কান্তরাম রায়কে বাচাঁতে তার বাবা সমাজের বিত্ত্ববানদের কাছে আকুতি জানিয়েছেন।

কান্তরামের বাবা হরেন্দ্রনাথ জানান, দেড় বছর আগে দ্বিতীয় ছেলের চোখের কাছে টিউমার দেখা দিলে হোমিও প্যাথিক ঔষধ সেবন করার পর টিউমার বৃদ্ধি হলে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করাই। সেখানে পরীক্ষা  করার পর কান্তরামের মাংসপেশীতে ক্যান্সার ধরা পরে। 

পরে রংপুর মেডিক্যাল কলেজের চিকিৎসক ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করে। ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে দেড়মাস চিকিৎসা চলা অবস্থায় অপারেশন করার পর কেমথেরাপি দেওয়া হয়। বর্তমানে রেডিও থেরাপি দেওয়ার পরামর্শ দেন ডাক্তার।

দীর্ঘদিন  রংপুর ও ঢাকায় চিকিৎসা করায় দিনমজুর পিতা এখন নিঃস্ব । অর্থাভাবে বর্তমানে ক্যান্সার আক্রান্ত ছেলেকে বাড়ীতে নিয়ে আসে। চিকিৎসকের চিকিৎসা ব্যবস্থাপনা পত্র অনুযায়ী ঔষধ কিনতে পারছেন না তিনি। অপরদিকে রেডিও থেরাপি দেওয়া অতীব জরুরী হয়েছে।

কান্নাজড়িত কন্ঠে হরেন্দ্রনাথ রায় সাংবাদিকদের মাধ্যমে সমাজের বিত্তবানদের কাছে আকুল আবেদন জানিয়ে বলেন, আমার ছেলেকে আপনারা বাচাঁন! টাকার জন্য ছেলের চিকিৎসা করতে পারছি না । 


আপনারা আমার ছেলেকে বাঁচাতে এগিয়ে আসুন । 

কান্তরামের বিষয়ে লক্ষীচাপ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জনাব আমিনুর রহমান বলেন, আমি ব্যক্তিগত ভাবে হরেন্দ্রনাথকে চিনি ও জানি । সে দিনমজুর ও তার দ্বিতীয় ছেলে ক্যান্সারে আক্রান্ত। এ রোগে যে পরিমান অর্থের প্রয়োজন তাদের পক্ষে এ ব্যায় বহন করা সম্ভব নয়।  

আমার সাধ্য অনুযায়ী তাদের সহযোগীতা করছি। (যোগাযোগ হরেন্দ্রনাথ রায়- ০১৭৭৩২২৫৬৮৬ (বিকাশ পার্সোনাল)।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য