নওগাঁর মহাদেবপুরে জমি জমা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে প্রতিপক্ষের হামলায় আহত ৬

কাজী সামছুজ্জোহা মিলন, নওগাঁ
নওগাঁর মহাদেবপুরে জমি-জমা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে প্রতিপক্ষের হামলায় জন গুরুতর আহত হয়েছে। চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে গত সোমবার সকাল দশটায় উপজেলার শালবাড়ি গ্রামে। জানা যায়, গ্রামের আনোয়ারের ছেলে একলাছ, জিল্লুর রহমান, এরশাদ, মৃত ভরতুল মণ্ডলের ছেলে মোতাহার, তার ছেলে হাফিজুর শহিদুল তাদের জমিতে ধান লাগানোর কাজ করছিলেন। পূর্ব শত্রুতার জের ধরে পার্শ্ববর্তী খোশালবাড়ি গ্রামের মৃত এচাহাক আলীর পুত্র কামাল রায়হান, তার ছেলে সৈকত রেজা একই গ্রামের আবজালের ছেলে হাসু রাসু, মতিনের ছেলে মেহেদী, মৃত শফীর ছেলে মিজানুর, মৃৃত তায়েজের পুত্র বাবুল, কাশেমের পুত্র মান্নানসহ ৩০-৩৫ জনের সঙ্গবদ্ধ দল হাতে লাঠি, দা-কুড়াল, হাসুয়া নিয়ে তাদের ওপর অতর্কিত হামলা চালিয়ে ঘটনাস্থলেই সবাইকে গুরুতর আহত করে। সেখানে তারা একটি পাওয়ার টিলার ভেঙ্গে চুরমার করে দেয় পাঁচটি মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নিয়ে চলে যায়। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে একলাছের অবস্থা গুরুতর হলে প্রথমে তাকে নওগাঁ সদর হাসপাতালে, সেখানে তার অবস্থার অবনতি হলে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। এছাড়াও অন্য আহতরা নওগাঁ সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আছেন। আনোয়ারের স্ত্রী আরফাতুন, মেয়ে আফিয়া রহিমা, জিল্লুর রহমানের স্ত্রী ফরিদা অভিযোগ করে বলেন, প্রতিপক্ষরা তাদের উপর অতর্কিত হামলা চালিয়ে রক্তাক্ত জখম করে। এতে কয়েক জনের হাত ভেঙ্গে যায়, মাথা ফেটে যায়। অনেকের অবস্থা চরম সংকটাপন্ন। এর পূর্বেও তারা বাড়িতে হামলা চালিয়ে বেশ কয়েক জন মহিলাকে গুরুতর আহত করে। আরফাতুন এর কান কেটে নেয়। তারা ঘটনার সুষ্ঠু বিচার দাবি করেছেন। ঘটনায় নওহাটা পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই ফরিদ উদ্দিন জানান,খবর পেয়ে তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। মহাদেবপুর থানার অফিসার-ইনচার্জ নজরুল ইসলাম জুয়েল জানান, ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের হলে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। ব্যাপারে অভিযুক্তদের সাথে যোগাযোগ করা কোনভাবেই সম্ভব হয়নি।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য