স্বইচ্ছায় বিয়ে করলেন হামিদা, মিথ্যা মামলার প্রতিবাদ(ভিডিও)

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ
কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলা বাহার ছড়া বড়ডেইল গ্রামের প্রবাসী মো আমিনের মেয়ে হামিদা বেগম(১৮), একই এলাকার মারিষবনিয়া গ্রামের প্রবাসী বশির আহাম্মদের পুত্র আবছার উদ্দিনের  সাথে দীর্ঘদিন ধরে প্রেমের সম্পর্কছিল। সেটির বাস্তবে রূপ দিতে হামিদা তার বাবা মাকে একধিকবার আবছারকে বিয়ে দিতে বলে আসছিল এতে তার বাবা মা এই বিয়েতে রাজি না হওয়ায় হামিদা গত কয়েকদিন আগে কাউকে কিছু না বলে স্বইচ্ছায়  আবছারের হাত ধরে পালিয়ে বিয়ে করতে আসেন। ইতোমধ্যে দেশের প্রচলিত আইন অনুযায়ী ইসলামি শরিয়ামোতাবেক বিয়ে করে পেলছেন তারা। বিষয় টি হামিদা ভিডিও বার্তায় নিজ মুখে স্বীকার করেছেন। এতে তিনি মিথ্যা অপহরণ মামলায় নিরীহ কাউকে হয়রানি না করার  জোর প্রতিবাদ জানান।
এদিকে হামিদার বাবা মা তাদের মেয়ে সম্পুর্ন স্বইচ্ছায় আবছারকে  বিয়ে করতে চলে আসার বিষয়টি জানার পরেও হামিদার পরিবার টেকনাফ মডেল থানায় ৫ জনকে আসামি করে একটি চরম মিথ্যা অপহরণ মামলা দায়ের করেছেন বলে দাবী তাদের। এতে  আবছার উদ্দিন, সাইফুল কাদের, আবছারের চাচা আলী আহাম্মদ, হোসেন আহাম্মদ ও তার মা আনোয়ারা বেগমকে আসামি করে হয়রানি করা হচ্ছে বলে দাবী তাদের পরিবারের। আপর দিকে আবছারের পরিবারের কেউ নয় স্থানীয় উচ্চ বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি সাইফুল কাদেরকেও এই মামলায় আসামি করে হয়রানি ও সম্মান হানি করছে বলে দাবি সাইফুল কাদেরের। দিবালোকের মতো একটি সত্য ঘটনাকে নানা মিথ্যা গল্প গুজব সাজিয়ে বিভিন্ন অনলাইন নিউজ পোর্টালে আবছার ও তার পরিবারের বিরুদ্ধে প্রকাশিত সংবাদের জোর প্রতিবাদ করেন তারা।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য