হোয়াইক্যং এ অস্ত্র, মাদক, হত্যাসহ ৩ মামলা মাথায় নিয়ে প্রকাশ্যে ঘুরছে পুতু

নিজস্ব প্রতিবেদঃ
টেকনাফ উপজেলাধীন হোয়াইক্যং ইউনিয়নের বাসিন্দা আব্দুল গফুরের পুত্র কবির আহমদ প্রঃ পুতু, অস্ত্র, মাদক, হত্যাসহ ৩ মামলা মাথায় নিয়ে প্রকাশ্যে ঘুরছে। পুতু হোয়াইক্যং ইউনিয়ন পরিষদের দফাদার হওয়ায় রহস্যজনক কারণে ‍পুলিশ তাকে গ্রেফতার করছে না বলে অভিযোগ উঠেছে। পুলিশের তালিকায় মাদক, অস্ত্র ও হত্যা মামলার চিহ্নিত আসামী হওয়ার পরও পুলিশের জালে কোন ভাবে আটকা পড়ছে না। কবির আহমদ পুতু কিছু দিন আগেও সাধারণ জীবন যাপন করে আসলেও, এখন চলাফেরা রাজার হালতে। ইউপি পরিষদে নিম্ন শ্রেণির কর্মচারী পরিচয়ে বেড়ালেও অবৈধ পথে উপার্জন করা অঢেল সম্পদের মালিক বলে দাবি করেছেন এলাকাবাসী। এলাকার অনেকেই দাবী করছেন পুতু পুলিশের সোর্স হিসেবে কাজ করে আসছে অনেকদিন থেকে। এমন সুবাধে পুলিশের সাথে সখ্যতা গড়ে উঠায় পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করছে না বলে অভিযোগ উঠেছে এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে। জানা যায় তার বিরুদ্ধে কক্সবাজার টেকনাফ থানায় অস্ত্র আইনের ১ (১০) ১৯, মাদক আইনের ২(১০)১৯ইং, অন্যান্য ৩(১০)১৯ নং মামলা রয়েছে। যার টেকনাফ থানা মামলা নং- ০১/৮৮১, ০৩/৮৪৩, ০২/৮৪২ মামলা এজহার নামীয় আসামী। অস্ত্র, মাদক, হত্যাসহ ৩টি মামলায় আসামী হলেও এখনো কবির আহমদ পুতু গ্রেফতার হচ্ছে না। প্রতিদিন ইউপি পরিষদে নিত্য যাওয়া আসা করে সাভাবিক ভাবে কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন তিনি। মাঝে মাঝে তাকে পুলিশের সাথেও ঘুরতে দেখা যায় বলে দাবী করছেন এলাকাবাসী। এ বিষয়ে কবির আহমদ প্রঃ পুতুর সাথে তার ব্যবহৃত মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান আমার বিরুদ্ধে আনিত ৩টি মামলা ষড়যন্ত্র মূলক ও এই মামলার অভিযোগ পত্র থেকে বাদ দেওয়ার প্রক্রিয়া চলছে। হোয়াইক্যং ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান নূর আহমদ আনোয়ারী জানান কবির আহমদ প্রঃ পুতুর বিরুদ্ধে মামলা আছে আমি অবগত নয়। তবে সে আমাদের ইউপি পরিষদে নিয়মিত উপস্থিত থাকে। 

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য