সৈয়দপুরে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের অভিযানে চার ব্যবসায়ীসহ শিক্ষার্থীর অভিযোগে অপর প্রতিষ্ঠানের জরিমানা ..

মিজানুর রহমান মিলন,সৈয়দপুর প্রতিনিধি: সৈয়দপুরে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের ভেজাল বিরোধী অভিযানে হোটেলসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের ২৮ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। ওই অভিযান চলাকালে এক শিক্ষার্থীর অভিযোগে অপর একটি কনফেকশনারী মালিকের তিন হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এছাড়া একটি কসমেটিকস দোকানে পণ্যের কভারে মূল্য তালিকা ট্যাম্পারিং করায় ওই প্রতিষ্ঠান মালিককে সতর্ক করা হয়েছে। আজ মঙ্গলবার দুপুরে শহরের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে অভিযান পরিচালনা করা হয়। জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর রংপুর বিভাগীয় দপ্তরের দিনাজপুর অঞ্চলের নীলফামারী জেলার দায়িত্বপ্রাপ্ত সহকারি পরিচালক মমতাজ বেগম ওই অভিযান পরিচালনা করেন। সুত্র জানায়, অভিযান পরিচালনাকারি দলের সদস্যরা শহরের শেরে -বাংলা সড়কের নিউ বনফুল সুইটস্ অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাদ্য উৎপাদন করে ক্রেতাদের মাঝে বিতরণের প্রমাণ পাওয়ায় হোটেল মালিক রবিন ঘোষের ১০ হাজার, একই এলাকার খুশি হোটেল মালিক সিরাজুল ইসলামের তিন হাজার,মোল্লা রোড চাউল বাজারে অবস্থিত মাসুদের ফলের গোডাউনে অপরিচ্ছন্ন অবস্থায় শুকনা বড়ই সংরক্ষণ বিতরনের অভিযোগে মাসুদের ১০ হাজার এবং শহীদ ডা. শামসুল হক সড়কে . রহমান কসমেটিকস স্টোরে অবৈধভাবে কসমেটিক্স সংরক্ষন এবং পণ্যের প্যাকেটে মূল্য টেম্পারিং করায় দুই হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এছাড়া একই সড়কে অপর একটি কসমেটিকস দোকানে  মূল্য তালিকার স্টীকার সংরক্ষণ করায় ওইসব স্টীকার জব্দ করে প্রতিষ্ঠান মালিককে কঠোরভাবে সতর্ক করেন সহকারি পরিচালক মমতাজ বেগম। এদিকে অভিযান চলাকালে উৎপাদিত পাউরুটির প্যাকেটে মেয়াদের তালিকা অস্পষ্ট এবং মূল্য লেখা না থাকায় শহীদ ডা. শামসুল হক সড়কের ইমরান কনফেশনারীর তিন হাজার টাকা জারিমানা করা হয়। সুইটি নামে এক ছাত্রীর অভিযোগের প্রেক্ষিতে ওই প্রতিষ্ঠানে অভিযান চালানো হয়। এসময় অভিযোগের সত্যতা মেলায় জরিমানার তিন হাজার টাকার পঁচিশ ভাগ ৭৫০ টাকা তাৎক্ষণিক ওই ছাত্রীকে দেয়া হয়। এসব অভিযান চলাকালে অন্যদের মধ্যে ছিলেন সৈয়দপুর পৌরসভা স্যানিটারী পরিদর্শক মো. আলতাফ হোসেন সরকারসহ থানা পুলিশ সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য