কিশোরগঞ্জে জমি নিয়ে দুপক্ষের সংঘর্ষে নিহত ১, আহত ৬


রউফুল আলম,  কিশোরগঞ্জ (নীলফামারী) প্রতিনিধি: নীলফামারীর কিশোরগঞ্জ উপজেলায় জমি নিয়ে দুপক্ষের সংঘর্ষে একজনের মৃত্যু হয়েছে। ঘটনায় দুই নারীসহ জন আহত হয়েছেন। ঘটনাটি ঘটেছে শনিবার সকালে বাহাগিলি ইউনিয়নের উত্তর বাহাগিলি ডাঙ্গাপাড়া গ্রামে। ওই ব্যক্তির নাম এনামুল হক (৪৮) সে চাঁদখানা ইউনিয়নের কাঠগাড়ী পন্ডিতপাড়া গ্রামের মৃত্যু উজির মামুদের ছেলে। আহতদের উদ্ধার করে কিশোরগঞ্জ হাসপাতাল এবং রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রবিবার সকালে এনামুলের মৃত্যু হয়। কিশোরগঞ্জ থানা পুলিশ প্রত্যক্ষদর্শী সুত্রে জানা গেছে, বাহাগিলি ইউনিয়নের উত্তর বাহাগিলি গ্রামের চিনার উদ্দিনের ছেলে ইশা মামুদের সঙ্গে এক একর ৩০ শতক জমি নিয়ে দীর্ঘদিন থেকে মামলা মোকদ্দমা চলে আসছিল। ঘটনার দিন চাঁদখানা ইউনিয়নের মৃত উজির মামুদের ছেলে এনামুল হক বড় ছেলে একরামুল, নাতী হানিফ মিয়া ভাতিজা তহিবুলকে সঙ্গে নিয়ে বাড়ি থেকে বের হন। তিনি বাহাগিলি ইউনিয়নের উত্তর বাহাগিলি ডাংগাপাড়া গ্রামের চিনার উদ্দিনের ছেলে ইশা মামুদের বাড়ির কাছাকাছি গেলে উভয়পক্ষের মাঝে সংঘর্ষ বেধে যায়। সময় ইশা মামুদের ছেলে আজিকুল মিয়া ভগ্নিপতি এন্তাজ মিয়া, তার স্ত্রী আশেদা বেগম এবং প্রতিবেশি মতিয়ার রহমানের ছেলে মিঠু মিয়া, বাবু মিয়াসহ সকলে দেশীয় অস্ত্র দিয়ে এনামুলকে মারপিট শুরু করে। সংঘর্ষের পর এনামুলের অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় তাকে রংপুর মেডিকেল এবং বাকিদের কিশোরগঞ্জ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এদিকে অবস্থা বেগতিক দেখে ইশা মামুদ নিজ বাড়ির রান্নাঘরে আগুন লাগিয়ে দেয়। খবর পেয়ে তারাগঞ্জ ফায়ার সাভিসের একটি ইউনিট ঘটনাস্থলে এসে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। আহতরা হলো হানিফ মিয়া (২৬) একরামুল (২৮) তহিবুল (৩৪) অপর পক্ষের এন্তাজুল মিয়া(৪০) আজিকুল (২৫) আশেদা (৪৫) তারাগঞ্জ ফায়ার সাভিসের ষ্টেশন অফিসার খতিবুল ইসলাম বলেন, বাহাগিলিতে আগুন লাগার খবর পেয়ে দ্রুত গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনা হয়েছে, হতাহতের কোনো ঘটনা ঘটেনি। কিশোরগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ হারুন অর রশিদ বলেন, জমি নিয়ে দুপক্ষের সংঘর্ষের ঘটনায় রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় একজন মারা গেছে। মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য