ধান কাটতে ডোমার ছাড়ছেন ১০ হাজার কৃষি শ্রমিক


রতন কুমার রায়-স্টাফ রিপোর্টার:
 

নীলফামারীর ডোমার উপজেলা হতে এবার প্রায় ১০ হাজার কৃষি শ্রমিক ধান কাটতে দেশের বিভিন্ন স্থানে যাবে। করোনা ভাইরাসের কারণে লকডাউনের এ সময়ে কৃষি শ্রমিকদের যাওয়া নিশ্চিত করতে ইউনিয়ন পরিষদ, থানা পুলিশ ও উপজেলা প্রশাসন একসাথে কাজ করছে। সোমাবর দুপুরে ১২টি মাইক্রোবাসে করে ১৯৫ জন কৃষি শ্রমিক ধান কাটতে আত্রাই, নওগা, শান্তাহার ও নোয়াখালির উদ্দেশ্যে রওনা হয়।   

কৃষি শ্রমিক নুরনবী ইসলাম জানান, লকডাউনে কোন কাজ নাই। তাই আমরা এলাকার কর্মহীন যুবকরা একত্রিত হয়ে নওগা যাচ্ছি। আশাকরি ধান কেটে নিজের ও পরিবারের খরচ বাদে কিছুটা সঞ্চয় হবে। কৃষি শ্রমিক সাজেদুল ইসলাম জানান আমরা ১৬ জনের একটি দল আত্রাই রওনা হয়েছি। সেখানে তিন হাজার টাকা মজুরিতে প্রতি বিঘা জমির ধান কাটবো। প্রতিদিন প্রায় চার বিঘার মতো ধান টাকা যাবে। এতে একজনের প্রতিদিন সাতশত টাকার মতো মজুরী পড়বে। এবং যার জমিতে ধান কাটবো, তিনিই আমাদের থাকা ও খাওয়ার ব্যবস্থা করবে। 

ডোমার থানার অফিসার ইনচার্জ মো. মোস্তাফিজার রহমান জানান, ইউনিয়ন পরিষদের তালিকা ও উপজেলা প্রশাসনের সুপারিশ পত্র নিয়ে যেই কৃষি শ্রমিক আসছে। তাদের আমরা নিরাপদে যাওয়া ব্যবস্থা করে দিচ্ছি। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাহিনা শবনম জানান, এবারে প্রায় ১০ হাজারের মতো কৃষি শ্রমিক দেশের বিভিন্ন স্থানে ধান কাটতে যাবে। কোন হয়রানী ছাড়াই কৃষি শ্রমিকদের নিরাপদে যাওয়ার সকল ব্যবস্থা আমরা করে দিচ্ছি।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য