কুড়িগ্রামের চিলমারীতে দর্শনার্থীর কাছে চাঁদা দাবীর দায়ে ২ জনকে জেল হাজতে প্রেরণ


নয়ন দাস, কুড়িগ্রাম জেলা প্রতিনিধিঃ

কুড়িগ্রমের চিলমারী উপজেলার রমনা ঘাট এলাকায় ঘুরতে আসা দর্শনার্থীদের কাছ থেকে চাঁদা দাবী করায় ২জনকে গ্রেফতার করেছে চিলমারী মডেল থানা পুলিশ। রবিবার দুপুর ১টায় উপজেলার চিলমারী বন্দরের রমনা ঘাট এলাকায় উলিপুর থেতরাই এলাকা থেকে আসা রিয়াজুল ইসলাম (১৯) নামের এক যুবক তার তিন বান্দবীকে নিয়ে ব্রহ্মপুত্র নদ দেখতে আসে। 

এসময় রিয়াজুল ইসলাম তার বান্দবীদের সাথে আলাপ করতে করতে নদীর ঘাট এলাকায় হাটতে থাকলে অভিযুক্ত আবু সাঈদ ও মুন্না নামে দুই যুবক তাদের লক্ষ্য করে এগিয়ে যায়। পরে আটক করে দর্শনাথী রিয়াজুলের সাথে তর্কবিতর্কের এক পর্যায়ে তাকে কিল ঘুষি মেরে ১০ হাজার টাকা দাবী করে। সাথে টাকা নেই শুনে বিকাশের দোকানে নিয়ে যায়। ঐ চারজনের সাথে থাকা নগদ কিছু টাকা ও মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নেয় এবং ৩ মেয়েকে অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করে শ্লীলতাহানির চেষ্টা চালায়। 

এসময় দর্শনার্থী রিয়াজুল ইসলাম তার মামাকে টাকা নিয়ে আসার কথা বলে ৯৯৯ এ ফোন করে সহযোগিতা চাইলে, কিছুক্ষণের মধ্যে চিলমারী মডেল থানার এস আই মিতু আহমেদ ও কাইয়ুম সরকার  ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে ৪ দর্শনার্থী ও অভিযুক্ত দুই যুবককে থানায় নিয়ে আসে। পরে রিয়াজুল ইসলাম বাদী হয়ে একটি চাঁদাবাজীর মামলা দায়ের করেন। মামলা নং- ০৮, তারিখঃ ০৭/০৩/২০২১। 

গ্রেফতারকৃত যুবকরা হলেন, রমনা সোনারী পাড়া গ্রামের আব্দুর রহিমের পুত্র আবু সাঈদ (২২) ও রমনা খামার এলাকার মৃত নজরুল ইসলামের পুত্র মুন্না (২০)। সোমবার সকালে তাদের দু‘জনকে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয় বলে চিলমারী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আনোয়ারুল ইসলাম জানান।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য