পঞ্চগড়ের যে রাস্তাটি দিয়ে মানুষকে ভয়ে চলতে হয় ‘ চুরি, ছিনতাইয়ের ঘটনা


মোঃ কামরুল ইসলাম কামু,পঞ্চগড় প্রতিনিধিঃ
  

যে রাস্তাটিতে ভয়ে চলতে হয়। সন্ধ্যার পর গা ছম ছম করে ‘ ছিনতাইকারি আর ডাকাতের ভয়ে। হোক সাইকেল মোটর সাইকেল ওৎপেতে থাকে সংঘবদ্ধদল। কদিন আগে তেপুখুরিয়া বাজারের মেডিসিন ব্যবসায়ি রেজাউল ইসলা কে অ্রকমণ করে।  প্রাণে বেঁচে যান তিনি। তেপুখুরিয়া-বোয়ালমারি সড়কে রাতে মোটর বাইক নিয়ে যাওয়ার পথে গাছের গুড়ি ফেলে তাকে আটকানোর চেষ্টা করে ছিনতাইকারি ওই সংঘবদ্ধ দল। স্থানিয় থানা পুলিশ  ও ইউনিয়ন পরিষদের জনপ্রতিনিধিদের কাছে অভিযোগ করে লাভ হয়নি। হয়নি সুরাহা ‘ ঘটনা ঘটছেই প্রতিনিয়িত।

পঞ্চগড় সুগার মিল হয়ে দেবীগঞ্জ-মাড়েয়ার এই আঞ্চলিক মহাসড়কটি এখন বেশ ব্যস্ত রাস্তা। গ্রামীণ জনপদের এই রাস্তায় অবস্থিত তেপুখুরিয়া-বোয়ারমারি । মাঝে পথের প্রায় ৪০০ মিটার রাস্তায় চুরি ছিনতাই ও ডাকাতির মতো ঘটনা ঘটে। ওই মাঝপথটির নাম কাল্লাকাটা। এ পথে ২/৩ জন একত্রিত হয়ে চলা বেশ ভয়ের। অচমকা আঘাত আসতে পারে শরীরে। সংঘবদ্ধদলটি জাড়জঙ্গলে ওৎ পেতে থাকে। পাশে করতোয়া নদীর চর। অপরপাশে ফাঁকা ফসলের জমি। স্থানিয়দের ধারনা ‘ সংঘবদ্ধদলটি স্থানিয় ভাবে গড়ে ওঠা। যেহেতু ফাঁকা ‘এই কারণে সুযোগ নিচ্ছে দলটি।

বোদা উপজেলার বেংহাড়ি ও মাড়েয়া ইউনিয়নের মধ্যবর্তী স্থান ‘কাল্লাকাটা নাম স্থানটি। স্থানিয় বাসিন্দাদের অনেকেই জানায় ‘ এটা সবাই জানে ‘ জানে পুলিশ ও । প্রায় সময় মানুষ সংঘবদ্ধ দলের দ্বারা আক্রান্ত হয়। ঘটনার বহু প্রমাণ আছে ‘থানা পুলিশের নিকট। মেডিসিন ব্যবসায়ি রেজাউল ইসলাম জানান ‘ গত ২০ ফ্রেবয়ারি তার বাড়ি থেকে পাঁচটি গরু চুরি হয় ‘যার মূল্য প্রায় সাড়ে তিণ লাখ টাকা। এ ব্যাপারে থানায় লিখিত দিয়েছি ‘ কোন কাজ হয়নি। পুলিশ আসেও নি আমাদের কিছু বলেও নি। এছাড়া ১৮ ফ্রেবয়ারি সে বাড়ি যাওয়ার পথে গাছের গড়ি ফেলে তার মোটর সাইকেল নেওয়ার চেষ্টা করে‘ আমি প্রাণে বেঁচে যাই। আমরা এ রাস্তা দিয়ে নিরাপদে চলতে পারি না।

এ বিষয়ে   বোদা থানার অফিসার ইনর্চাজ (ওসি ) মো. আবু সাঈদ ’এর সাথে কথা বললে তিনি জানান’ গরু চুরির বিষয়ে কার্যক্রম চলছে ‘লষ্টি হচ্ছে। এবং কাল্লাকাটা নামক জায়গাটির বিষয়ে আমার জানা ছিলনা’ তবে আজ পুলিশ পাঠানো হবে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য