সৈয়দপুরে প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীর মাঝে হুইল চেয়ার ও বই বিতরণ করলো এ্যমপ্যাথি


মিজানুর রহমান মিলন, সৈয়দপুরঃ

নীলফামারীর সৈয়দপুরে স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা এ্যমপ্যাথির পক্ষ থেকে শারীরিক প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থী ও শিশুর মাঝে দুইটি হুইল চেয়ার ও বই বিতরণ করা হয়েছে। আজ মঙ্গলবার সকালে বাঙ্গালীপুর ইউনিয়নের লক্ষণপুর স্কুল এন্ড কলেজ চত্বরে ওই হুইল চেয়ার ও বই বিতরণ করা হয়। অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি লক্ষণপুর স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ মো. রেজাউল করিম রেজা প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থী ও শিশুর হাতে ওই হুইল চেয়ার ও বই তুলে দেন। 

এ সময় উপস্থিত ছিলেন স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা এ্যমপ্যাথি’র সভাপতি সাংবাদিক তোফাজ্জল হোসেন লুতু, পরিচালক মো. শফিকুল ইসলাম, লক্ষণপুর স্কুল ও কলেজের সহকারি প্রধান শিক্ষক মো. সাইদুল ইসলাম,সিনিয়র শিক্ষক মো. রহুল ইসলাম, মো. সাইফুল ইসলাম, মোজাহরুল ইসলাম, সৈয়দপুর আদর্শ বালিকা বিদ্যালয় ও কলেজের সিনিয়র শিক্ষক মো. নাছিম রেজা শাহ্ প্রমূখ। অনুষ্ঠানে সংস্থাটির পক্ষ থেকে শারীরিক প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থী মোছা. কাজল রেখাকে একটি হুইল চেয়ার ও  এক সেট বই এবং শহরের চামড়া গুদাম উর্দূভাষী ক্যাম্পের প্রতিবন্ধী শিশু নাসিমকে একটি হুইল চেয়ার প্রদান করা হয়। 

এদের মধ্যে  জন্মগতভাবে শারীরিক প্রতিবন্ধী কাজল রেখা  বদরগঞ্জ উপজেলার গোপীনাথপুর ইউনিয়নের মৌয়াগাছ মাঝাপাড়া এলাকার মৃত.একরামুল হক ও মমিছা বেগম দম্পতির মেয়ে। সে ছোট থেকেই বাবা-মায়ের কোলে পিঠে ভর করে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে গিয়ে লেখাপড়া চালিয়ে যাচ্ছে। বর্তমানে সে লক্ষণপুর স্কুল ও কলেজের একাদশ শ্রেণীর মানবিক বিভাগের ছাত্রী। এর আগে সে বুড়ীরহাট চাইল্ড কেয়ার একাডেমি থেকে পিইসি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়। পরে লক্ষণপুর স্কুল এন্ড কলেজে ষষ্ঠ শ্রেণীতে ভর্তি হয়ে ওই শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে জেএসসি ও এসএসসি পরীক্ষায় কৃতিত্বপূর্ণ ফলাফল করে সে। কাজল রেখা লেখাপড়ার পাশাপাশি একজন সংগীত শিল্পী। 

আর শারীরিক প্রতিবন্ধী মো. নাসিম সৈয়দপুর  চামড়া গুদাম উর্দূভাষী ক্যাম্পের হতদরিদ্র মো. ভুলুর ছেলে। সেও জন্মগতভাবে শারীরিক প্রতিবন্ধী। অর্থের অভাবে চলাফেরা করতে না পারা পুত্রের জন্য একটি হুইল চেয়ারের ব্যবস্থা করতে পারেনি তার বাবা মা। ফলে একটি হুইল চেয়ারের জন্য চরম কষ্ট করছিল সে। উল্লিখিত দুই প্রতিবন্ধীর চলাফেলায় কষ্টের বিষয়টি অবগত হয়ে সৈয়দপুরের স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা এ্যমপ্যাথি দুইটি হুইল চেয়ার প্রদান করেন।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য