কক্সবাজারে ভ্যাট ফাঁকি দেয়া হোটেল ও রেস্টুরেন্টের বিরুদ্ধে দুদকের অভিযান শুরু


আক্তার কামাল সোহেলঃ
কক্সবাজারে আবাসিক হোটেল ও রেস্টুরেন্টে ভ্যাঁট ফাঁকির বিরুদ্ধে অভিযান শুরু করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। অভিযানের প্রথমদিন কক্সবাজার শহরের কলাতলী এলাকায় উইন্ডো টেরেজ, অস্টারিকো, সী-উত্তরা, হোটেল ডায়মন্ড ও শালিক রেঁস্তোরায় প্রচুর ভ্যাঁট ফাঁকির প্রমান পাওয়া গেছে। সকাল ১১ টা থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত এ অভিযান চালানো হয়।

অভিযানের নেতৃত্ব দেন দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) সমন্বিত জেলা কার্যালয় চট্রগ্রাম-২ এর সহকারী পরিচালক যথাক্রমে মোহাম্মদ রিয়াজ উদ্দিন, রতন কুমার দাশ ও উপসহকারী পরিচালক মো.শরিফ উদ্দিন।

দুদক সুত্রে জানা গেছে, কক্সবাজার শহরে চার শতাধিক আবাসিক হোটেল, দুই শতাধিক রেস্টুরেন্ট ও কয়েক’শ বিভিন্ন ধরনের বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান কাষ্টমসের কতিপয় কর্মকর্তার সাথে যোগসাজস করে ভ্যাঁট ফাঁকি দিয়ে আসছে। এমন অভিযোগের প্রেক্ষিতে কাস্টমস এক্সাইজ ও ভ্যাঁট কর্মকর্তাদের সাথে নিয়ে ( ৯ ফেব্রুয়ারী) অভিযানে নামে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

অভিযানের নেতৃত্ব দেয়া কর্মকর্তারা জানান, অভিযান পরিচালনা করা প্রতিষ্ঠানগুলোকে ফাঁকিদেয়া সমুদয় ভ্যাঁট পরিশোধ করতে হবে অন্যথায় তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেবে দুদক। একইসাথে কক্সবাজারে আবাসিক হোটেল ও রেস্টুরেন্টে ভ্যাঁট ফাঁকির বিরুদ্ধে এ অভিযান আগামী এক মাস পর্যায়ক্রমে সব হোটেল-রেস্টুরেন্টে পরিচালনা করা হবে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য