নীলফামারীতে সুবিধাবঞ্চিত নূরানী ও দৃষ্টি প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের মাঝে কম্বল বিতরণ


বিশেষ প্রতিনিধিঃ

শীতের মাঝামাঝি সময়ে  তাপামাত্রা একদম কমে আসছে। এ পরিস্থিতিতে, দিনের সাথে সাথে রাতেও বেশ ঠাণ্ডা অনুভূত হচ্ছে। শীতের প্রকোপের কারণে যারা গ্রামে বসবাস করেন, বিশেষ করে প্রবীণ, তাঁদের বেশ সমস্যা পোহাতে হচ্ছে। পাশাপাশি, বাংলাদেশ আবহাওয়া অফিসের পূর্বাভাস অনুযায়ী চলছে শৈত্য প্রবাহ। এ পরিস্থিতিতে, নীলফামারী শহরের কলেজ পাড়াস্থ মোস্তফা কামাল নূরানী ও দৃষ্টি প্রতিবন্ধী হিফ্জুল কুরআন মাদ্রাসা ও লিল্লাহ্ বোডিংএ জানু-২৮ রোজ বৃহস্পতিবার বিকেল ৩টায়  টায় অসহায়, অস্বচ্ছল ছাত্রদের পাশে দাঁড়ানোর ক্ষুদ্র প্রচেষ্টায় এগিয়ে আছে "অনুপ্রেরণা" একটি সামাজিক ও অরাজনৈতিক সংগঠন। দৃষ্টি প্রতিবন্ধী ছাত্রদের  মাঝে  কম্বল বিতরণ ও সুরক্ষা সামগ্রী হিসেবে মাস্ক প্রদান করা হয়। 

উল্লেখ্য যে,সংগঠনটি করোনা কালীন সময়ে সুচনা হয়। ০৪জুলাই২০২০ ইং এ কিছু তরুণ মেধাবী ছাত্র/ছাত্রীর হাত ধরে সংগঠনটির পথ চলা শুরু হয়। কম্বল বিতরণ কালে উপস্থিত ছিলেন, সংগঠনটির কার্যকারী সদস্য বৃন্দ। সাকিল সিহাব, হাচিনা আক্তার আখি, রত্না আক্তার, সম্রাট ইসলাম, তরিকুল ইসলাম প্রমুখ। এছাড়াও কার্যকারী সদস্য হিসেবে দায়িত্বে রয়েছে মুজিবর রহমান, রকী মাহমুদ, শিমুল রায়, শ্রাবনী রায়, একরামুল হক, মান্না ইসলাম, নাজমুল হোসেন  নিলয়, ফরহাদ ইসলাম, রইসুল রানা, আরমিন আঁখি, নিতীস রায়, প্রফুল্ল  রায়, শিরিন আক্তার আশা, তৌফিক আহমেদ, সিয়াদ সাকিল, মামুন ইসলাম, মিনাল ইসলাম, মুজাহিদ ইসলাম, আলম ইসলাম, রাতুল হাসান, দিপক দাস প্রমুখ।    

এ বিষয়ে জানতে চাইলে সংগঠনটির প্রতিষ্ঠাতা সাকিল সিহাব বলেন, আমরা ক্ষুদ্র পরিসরে মানুষের পাশে দাঁড়ানোর চেষ্টা করছি। সকলের সহযোগিতা থাকলে সামনে আরও ভালো কিছু করতে পারব।তিনি আরও  বলেন, 'করোনায় আমরা সার্বক্ষণিক মানুষের পাশে থেকেছি, মাক্স বিতরন করেছি। এখন শীত আসছে। ঢাকার মতো অন্যান্য বড় শহরের তুলনায় বাংলাদেশের প্রত্যন্ত এলাকায় শীতের তীব্রতা বেশি। এসব গ্রামীণ এলাকায় বসবাসরত সুবিধাবঞ্চিত মানুষের জন্য শীতকাল বেশ পীড়াদায়ক। 

কারণ, শীত নিবারণের জন্য তাদের প্রয়োজনীয় শীতবস্ত্রের অভাব রয়েছে। এ বিষয়টি অনুধাবন করে শীতে তাদের মধ্যে কম্বল বিতরণের যে উদ্যোগ নিয়েছি তা চলমান রয়েছে। এসময় মোস্তফা কামাল নূরানী ও দৃষ্টি প্রতিবন্ধী হিফজুল কুরআন মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠা অনুপ্রেরণা সংগঠনের সকলকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানান এবং সকলকে সাধারণ মানুষের পাশে দাঁড়ানোর জন্য আহ্বান করেন।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য