নীলফামারী কিশোরগঞ্জে হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টি ববিতা রাণী সরকারকে সংবর্ধনা


আব্দুল মালেক, বিশেষ প্রতিনিধিঃ

নীলফামারীর জলঢাকা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সহ-সভাপতি প্রয়াত নেতা বাবু দীপেন্দ্র নাথ সরকারের কন্যা ববিতা রাণী সরকারকে সংবর্ধনা জানিয়েছে কিশোরগঞ্জ উপজেলার বড়ভিটা ইউনিয়ন হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদসহ সর্বস্থরের মানুষ। ইউনিয়ন হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ, ইউনিয়ন হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্ট ও বড়ভিটা সার্বজনিন বিষ্ণু মন্দিরের ভক্তবৃন্দের আয়োজনে মঙ্গলবার(২৯ ডিসেম্বর) সন্ধায় বড়ভিটা বাজার হামিদ মাষ্টারের আরতে এই গণসংবর্ধনা অনুষ্ঠিত হয়। 

তপন কুমার করের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন, আমন্ত্রিত অতিথি কিশোরগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুল আউয়াল, বিশেষ অতিথি রণচন্ডি স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ মুকুল হোসেন, বড়ভিটা স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ মহির উদ্দিন ও জলঢাকা হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সাধারন সম্পাদক মিরঞ্জন রায় রঞ্জু। এসময় উপস্থিত ছিলেন, ট্রাস্টির ব্যক্তিগত সহকারী বকুল সরকার, জেলা সজিব ওয়াজেদ জয় পরিষদেও সাধারন সম্পাদক রুহাত ফারুক, মুসা আলী, হাসানুর রহমান হাসান ও সাগর কুমার রায় প্রমুখ।

 বাংলাদেশ সরকারের ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রনালয়ের হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্ট এর রংপুর বিভাগীয় নীলফামারী, পঞ্চগড় ও কুড়িগ্রাম জেলার ট্রাস্ট নির্বাচিত করায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কে ধন্যবাদ জানিয়েছেন হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ বড়ভিটা ইউনিয়ন শাখার নেতৃবৃন্দ। এ সময় বক্তারা, আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নীলফামারী-৩ আসনের আওয়ামীলীগের মনোনীত সংসদ সদস্য হিসেবেও দেখতে চান।

এর আগে তিনি জলঢাকা মীরগঞ্জ কেন্দ্রীয় বিষ্ণু মন্দিরের পূনঃনির্মাণ ও নাট মন্দিরের শুভ উদ্বোধন করেন। বিকেলে বড়ভিটা কেন্দ্রীয় বিষ্ণু মন্দির পরিদর্শন শেষে সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে যোগ দেন। ববিতা রাণী সরকার বলেন, প্রধানমন্ত্রীর অনুদানের অভাব নেই, আমাকে উনি যথেষ্ঠ অনুদান দিয়েছেন। আপনারা চাইলে যে কোন মন্দির ও শ^শানে অনুদান নিতে পারেন, কিন্তু নিয়মানুসারে নিতে হবে। এসময় তিনি প্রধানমন্ত্রীর দীর্ঘায়ু কামনা চেয়ে প্রার্থনা আদায় করেন।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য