ভেস্তে যেতে বসেছে পঞ্চগড়ে ধান-চাল সংগ্রহ অভিযান বাজারে চাল ও ধানের দাম বেশি


মো. কামরুল ইসলাম কামু, পঞ্চগড়ঃ
 

সরকারী ভাবে চাল ও ধান সংগ্রহ অভিযান ভেস্তে যেতে বসেছে। বাজার দর সরকারী ভাবে সংগ্রহ দর সঙ্গতি থাকায় চাল ও ধান দিচ্ছে না কৃষক-মিলাররা। পঞ্চগড়ে  ২০০শত মিলার থাকলেও চুক্তি করেছে মাত্র ২২ জন। তবে চুক্তিবদ্ধরাও চাল দেয়নি এক ছটাকও। তারপরেও  বাজারে চালের দর কমছে না।

সরকার ধানের প্রতিমন দর ১০৫০ টাকা নির্ধারণ করলেও বাজারে ধানের দর প্রতিমন  ১০৫০ থেকে ১০৮০ টাকায় উঠানাম করছে। বাজারে নতুন আমন চাল প্রতি কেজি বিক্রি হচ্ছে ৪২ টাকা। অথচ সরকারী ভাবে প্রদিত কেজি চালে দর নির্ধারণ করা হয়েছে ৩৭ টাকা। ধানের সরকারী দর ২৬ টাকা।

জেলা খাদ্য বিভাগ সূত্রে জানা যায় ‘ চাল সংগ্রহ অভিযানে দু’দফায় তারিখ নির্ধারণ করা হয়। প্রথম তারিখ ছিলো ২৬/১১/২০২০ ইং। পরে তা বাড়িয়ে করা হয় ১০/১২/২০২০ ইং। এরপরেও মাত্র ২২ জন মিলার চুক্তি করলেও তারাও চাল দেননি।  পঞ্চগড় জেলায় চলতি আমন সংগ্রহ মৌসুমে চাল সংগ্রহের বরাদ্দ রয়েছে ৮ হাজার ১০৭ মেট্রিক টন। এবং ধান ৪ হাজার ৯২১ মেট্রিক টন। এর মধ্যে নব নির্মিত বোদা উপজেলার পাঁচপীর খাদ্যগুদামে উদ্বোধনী দিনে মাত্র ২ মেট্রিক টন ধান সংগ্রহ করা হয়।

 এ ব্যাপারে জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক মনিরুল ইসলাম মুঠো ফোনে বলেন ‘ কিছু জায়গায় শুরু করেছি ‘এখন মিটি এ আছি পরে কথা বলবো’।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য