অভিযোগ অস্বীকার স্থানীয় সাংসদের পঞ্চগড়ে পৌরসভা নির্বাচন; বিএনপি প্রার্থীর গণসংযোগে হামলায় আহত ৪’ সংবাদ সম্মেলন


মো. কামরুল ইসলাম কামু, পঞ্চগড়ঃ

পঞ্চগড়ে পৌরসভা নির্বাচনে বিএনপির মেয়র প্রার্থীর গণসংযোগে হামলার অভিযোগ উঠেছে। হামলায় বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ফরহাদ হোসেন আজাদসহ ৪ জন আহত হয়েছেন। বুধবার বিকেলে বিএনপি মনোনীত মেয়র প্রাথী তৌহিদুল ইসলাম তার বাসায় তাৎক্ষণিক এক সংবাদ সম্মেলনে এসব অভিযোগ করেন।

সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, বুধবার দুপুরে পৌরসভা এলাকার জালাসি ও হঠাৎপাড়ায় দলীয় নেতাকমীদের নিয়ে নিবাচনী গণসংযোগ করছিলেন বিএনপি প্রার্থী বর্তমান মেয়র তৌহিদুল ইসলাম। এ সময় পঞ্চগড়-১ আসনের সংসদ সদস্য মজাহারুল হক প্রধানের নির্দেশে লাঠিসোটা নিয়ে মনির, রাজু এবং যুবলীগকমীসহ কয়েকজন উশৃঙ্খল যুবক তাদের উপর হামলা করে। এতে বিএনপির কেন্দ্রীয় নির্বাহি কমিটির সদস্য ও জেলা বিএনপির আহ্বায়ক কমিটির সদস্য সচিব ফরহাদ হোসেন আজাদ, পৌর বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল্লাহ আল মামুন রনিক, বিএনপি নেতা আব্দুর রাজ্জাকসহ ৪ জন আহত হয়।

সংবাদ সম্মেলনে বিএনপি’র সদস্য সচিব ফরহাদ হোসেন আজাদ, কেন্দ্রীয় যুুবদলের সদস্য মো, রইসউদ্দিন, পৌর বিএনপি সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল্লাহ আল মামুন রনিক, জেলা যুবদলের আহবায়ক ফেরদৌস ওয়াহিদ রাসেল, সদস্য সচিব নুরুজ্জামান বাবু, জেলা ছাত্রদলের সভাপতি আব্দুল কাদের মাসুম, সাধারণ সম্পাদক মনিরুজ্জামান মানিকসহ বিএনপি, যুবদল ও ছাত্রদল নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।    বিএনপি মেয়র প্রার্থী তৌহিদুল ইসলাম বলেন, স্থানীয় সংসদ সদস্য মজাহারুল হক প্রধানের নির্দেশে এই হামলা হয়েছে এবং তিনি নিবাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘণ করে মঙ্গলবার স্থানীয় হিমালয় পার্কে সভা করেছেন। তিনি পৌর এলাকার দর্জিপাড়া, মিঠাপুকুর এলাকায় নির্বাচনী প্রচারণা করছেন। এতে করে আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি অবনতি হতে পারে।

আওয়ামীলীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থীর নির্বাচন পরিচালনা কমিটির আহবায়ক ও জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি আবু তোয়বুর রহমান বলেন, সংসদ সদস্য মজাহারুল হক প্রধান কোথাও কোন সভা বা নির্বাচনী প্রচারণায় অংশ নেননি। তার বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ আনা হচ্ছে। জালাসী এলাকার গণসংযোগে বিএনপি প্রার্থী আওয়ামীলীগ প্রার্থীকে ‘মহিলা’ বলার কারণে সেখানকার নারী সমর্থকরা ক্ষেপেছিল। সেখানে কোন ছাত্রলীগ বা যুবলীগ কর্মি ছিল না। বিএনপি প্রার্থীর পায়ের নিচে মাটি নেই বলেই এমন আবোল তাবোল কথা বলছেন।

পঞ্চগড়-১ আসনের সংসদ সদস্য মজাহারুল হক প্রধান বলেন, এটা তাদের পুরাতন অভ্যাস। যখন তাদের অবস্থা খারাপ দেখে, তখন তারা এ ধরণের বিভ্রান্তি সৃষ্টির চেষ্টা করে। ধানের শীষের প্রার্থী অভিযোগ সম্পূর্ণ মিথ্যা, ভিত্তিহীন ও বানোয়াট। আমি কোন নির্বাচনী কাজে সম্পৃক্ত নই। দলীয় প্রার্থীর পক্ষেও কোন কাজ করছি না।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য