সৈয়দপুরে অগ্নিকান্ডে মাথা গোঁজার ঠাই হারালো ১৬টি পরিবার

মিজানুর রহমান মিলন, স্টাফ রিপোর্টারঃ

নীলফামারীর সৈয়দপুরে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে সর্বস্ব হারিয়ে মাথা গোঁজার ঠাই হারালো  ১৬ টি পরিবার। অগ্নিকান্ডের ঘটনায় ওইসব পরিবারের সর্বস্ব পুড়ে গেছে। উপজেলার বোতলাগাড়ী ইউনিয়নের  উত্তর সোনাখুলী বালিকান্তপাড়ায় গতকাল বৃহস্পতিবার রাত নয়টার দিকে ওই অগ্নিকাণ্ডের ওই ঘটনা ঘটে।

 এতে পরিবারগুলোর অর্ধকোটি টাকার বিভিন্ন সম্পদ  ভস্মীভূত হয়েছে বলে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারগুলো দাবি করেছে। তারা শুধুমাত্র পরণের কাপড় ছাড়া কোন কিছুই রক্ষা করতে পারেনি। খবর পেয়ে সৈয়দপুর ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের অগ্নি নির্বাপক দলের কর্মীরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে আগুনে নিয়ন্ত্রণে আনেন।

জানা গেছে, ঘটনার দিন গত বৃহস্পতিবার রাত ৯টার দিকে বোতলাগাড়ী ইউনিয়নের ৭ নম্বর ওয়ার্ডের হিন্দু অধ্যূষিত এলাকা বালিকান্তপাড়ার জনৈক সজেন চন্দ্র রায়ের বাড়ি থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়। মুর্হুতেই আগুনের লেলিহান শিখা ওই পাড়ার আশপাশের বাড়িগুলোতেও বিদ্যুৎগতিতে ছড়িয়ে পড়ে। 

আগুনে ওই পাড়ার ১৬ টি  পরিবারের ৫০টি ঘর, ধান, চাল, স্বর্ণাংলকার, কাপড়চোপড়,  আসবাবপত্রসহ বাড়িগুলোর সবকিছু পুড়ে যায়। খবর পেয়ে সৈয়দপুর ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের সিনিয়র স্টেশন অফিসার মো. খুরশীদ আলমের নেতৃত্বে কর্মীরা দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন। কিন্তু তাঁর আগে ভয়াবহ আগুনে পরিবারগুলোর সর্বস্ব পুড়ে ছাঁই হয়ে যায়। 

এ সময় পরিবারের সদস্যরা তাদের পরণের কাপড় ছাড়া কোন কিছুই রক্ষা করতে পারেননি। বর্তমানে আগুনের ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারগুলোর খোলা আকাশের নিচে বসবাস করছে। সৈয়দপুর ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স স্টেশনের সিনিয়র স্টেশন অফিসার মো. খুরশীদ আলম জানান, আগুনের খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয় ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা। 

আগুনে ১৬ টি পরিবারের ২৫ লাখ টাকার মালামাল পুড়ে গেছে বলে প্রাথমিকভাবে অনুমান করা হয়। সৈয়দপুর উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মো. আবু হাসনাত সরকার আগুনে ১৬টি পরিবারের সর্বস্ব পুড়ে যাওয়া বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তিনি  জানান, আজ শুক্রবার বিকেলে আগুনে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারগুলোর মাঝে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদফতরের বিভিন্ন ত্রাণসামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য