সংবাদ সম্মেলনে প্রতিকার ও বিচার দাবি ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে আকাশচুম্বী অনিয়ম-দুর্নীতি

আঃ মতিন সরকার, গাইবান্ধা প্রতিনিধি ॥ 
গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার ধোপাডাঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোখলেছুর রহমান রাজুর বিরুদ্ধে আকাশচুম্বী অনিয়ম-দুর্নীতি স্বেচ্ছাচারিতা ও অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ করেছেন কয়েকজন ইউপি সদস্য। মঙ্গলবার গাইবান্ধা প্রেসক্লাবে তার অনিয়ম-দুর্নীতির প্রতিকার ও বিচার দাবিতে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলন এ অভিযোগ করা হয়। 

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে উল্লেখ করা হয়, মোখলেছুর রহমান রাজু ধোপাডাঙ্গা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়ার পর থেকে অনিয়ম-দুর্নীতি শুরু করে। বর্তমানে তার স্বেচ্ছাচারিতা ও ক্ষমতার অপব্যবহার আকাশচুম্বী হয়ে গেছে। তিনি গত ১৮ মাস থেকে ইউনিয়ন পরিষদে অফিস করেন না। 

ফলে এলাকার জনগণ ইউনিয়ন পরিষদের নানা সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। সংবাদ সম্মেলনে আরও উল্লেখ করা হয়, ইউপি চেয়ারম্যান মোখলেছুর রহমান রাজু পরিষদের মাসিক সাধারণ সভা না করে নিজের খেয়ালখুশিমত কার্যক্রম পরিচালনা করে। এছাড়াও তিনি ১% ভূমি উন্নয়ন করের অর্থ ও এলজিএসপি’র সভা না করে নামে বেনামে প্রকল্প গ্রহণ করে অর্থ আত্মসাত করে। 

শুধু তাইনয়, তিনি শিশু ভাতার অবৈধভাবে অর্থ গ্রহণ, এডিবি’র বরাদ্দ সম্পর্কে ইউপি সদস্যদেরকে না জানিয়ে প্রকল্প গ্রহণ করে অর্থ আত্মসাৎ, করোনাকালিন সময় সারের ভর্তুকির অর্থ আত্মসাৎ, ইউনিয়ন পরিষদের ট্যাক্সের অর্থ আত্মসাৎ, জন্ম-মৃত্যু নিবন্ধন বাবদ অতিরিক্ত টাকা গ্রহণ ও হয়রানী করে আসছে। এছাড়া ইউনিয়ন তথ্যসেবা কেন্দ্রের কোন প্রকার কার্যকারিতা নেই। 

ফলে সাধারণ জনগণকে চরম দুর্ভোগের শিকার হতে হচ্ছে। এব্যাপারে ইতোপূর্বে স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী, গাইবান্ধা জেলা প্রশাসক, গাইবান্ধার ডি.ডি, এলজি, সুন্দরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবরে অভিযোগ করা হয়েছে। 

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, ইউপি সদস্য মমতাজ আলী, সংরক্ষিত মহিলা সদস্য জোসনা বেগম ও রাশেদা বেগম এবং এলাকাবাসি আব্দুর রাজ্জাক আলম, মো. মোসলেম আলী প্রমুখ। 

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য