সাংবাদিকদের কে হয়রানি বন্ধে সারাদেশে সাংবাদিক নির্যাতন প্রতিরোধ কমিটি গঠন হচ্ছে

মোহাম্মদ হায়দার আলী, বিশেষ প্রতিনিধিঃ
পেশাদার সাংবাদিকদের উপর জুলম-,নির্যাতন বন্ধ করতে সারাদেশে সাংবাদিক নির্যাতন প্রতিরোধ কমিটি গঠিত হচ্ছে বলে জানা গেছে। দেশের সকল জেলা ও উপজেলা সমুহে নিম্নোক্ত নিয়মে প্রতিরোধ কমিটি গঠন করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরাম (বিএমএসএফ) এর কেন্দ্রীয় কমিটির সম্মানিত সাধারণ সম্পাদক আহমেদ আবু জাফর। 

কমিটি গঠনের নিয়মাবলীঃ
১। সভাপতি-একজন (অবশ্যই সাংবাদিক হতে হবে)
২। সহ-সভাপতি- ৩ জন (দুই জন সাংবাদিক হতে হবে)
৩। সম্পাদক একজন (অবশ্যই সাংবাদিক হতে হবে)
৪। আইন উপদেষ্টা-দুই জন (অবশ্যই আইনজীবি হতে হবে) ৫। সাংগঠনিক সম্পাদক-একজন (সাংবাদিক হতে হবে) ৬। অর্থ সম্পাদক- একজন (সাংবাদিক হতে হবে) ৭। প্রচার সম্পাদক একজন (সাংবাদিক হতে হবে)
৮। দপ্তর সম্পাদক একজন (সাংবাদিক হতে হবে)
৯। আইটি সম্পাদক একজন (সাংবাদিক হতে হবে)

উক্ত কমিটিতে ১০ নং এ নির্বাহী সদস্য হিসেবে ১০জন সদস্য নেয়া হবে। (মুক্তিযোদ্ধা, রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব, জনপ্রতিনিধি, নারীনেত্রী, এনজিও ব্যক্তিত্ব, ছাত্র নেতা ও সাংবাদিকদের মধ্য থেকে অন্তর্ভূক্ত করতে হবে)। 
উপদেষ্টা পরিষদ বাদে মোট ২১ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠিত হবে। ৫-৭ সদস্য বিশিষ্ট উপদেষ্টা পরিষদ গঠিত হবে। আরও জানা যায়, সাংবাদিকদের ক্ষেত্রে স্থানীয় প্রেসক্লাব, বিএমএসএফ, জাতীয় সাংবাদিক সংস্থা ও রিপোর্টার্স ইউনিটিসহ সাংবাদিক সংগঠনসমুহের সদস্য সাংবাদিক বান্ধব ব্যক্তিদেরকে অগ্রাধিকার দিতে হবে। 

কমিটির প্রধান উপদেষ্টা পদে স্থানীয় সংসদ সদস্যকে অন্তর্ভূক্ত করতে হবে। এছাড়া জেলা পর্যায়ে জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান, উপজেলা পর্যায়ে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান, নির্বাহী কর্মকর্তা, সার্কেল এসপিকে সম্মানিত উপদেষ্টা পদে অন্তর্ভূক্ত করতে হবে। এর বাইরে গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিদেরকে উপদেষ্টা ও দাতা সদস্যপদে অন্তর্ভূক্ত করা যাবে। প্রয়োজনে যেকোনো পদ রদবদল করা যেতে পারে।

সাংবাদিক নির্যাতন প্রতিরোধ কমিটি গঠন বিষয়ে বিস্তারিত  জানতে সাংবাদিক নির্যাতন প্রতিরোধ কমিটির সমন্বয়কারী ও বিএমএসএফ’র সাধারণ সম্পাদক আহমেদ আবু জাফর এর সাথে যোগাযোগ করুন।
মোবাইল নং-০১৭১২৩০৬৫০১, ইমেইল jaforsbds@gmail.com

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য