মিঠাপুকুরে প্রকাশ্যে ঘুরছে মারপিটের ঘটনায় মামলার আসামী গ্রেফতার করছে না পুলিশ

রুবেল ইসলাম, রংপুরঃ
রংপুরে ছাগলে গাছের পাতা খাওয়াকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের মারপিটের ঘটনায়  নারীসহ একই পরিবারের ৬ জন আহত হয়েছে। 

এঘটনায় থানায় মামলা দায়েরের প্রায় দেড় মাসেও পুলিশ কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি বলে দাবী ভুক্তভোগী পরিবারের।

ঘটনাটি ঘটেছে,মিঠাপুকুর উপজেলার ভাংনী ইউনিয়নের ঠাকুরবাড়ি বাজার সংলগ্ন  ইসলামপুর  গ্রামে।

মামলা সুত্রে জানা গেছে,দুই মে দুপুরে ঐ গ্রামের ফজলুল করিম ভুইয়ার  একটি ছাগল বাড়ীর পার্শে অবস্থিত ঈদগাহ মাঠে লাগানো কাঠাল গাছের পাতা খায়। ফজলুলের স্রী  মিনারা ছাগল আনতে গেলে প্রতিবেশী ফয়েজ আহমেদের ছেলে স্কুল শিক্ষক মিজানুর রহমানসহ কয়েকজন গালিগালাজ করতে থাকে। 

মিনারা ছাগল নিয়ে বাড়ীতে চলে যায়। পরবর্তী সময় একই দিনে পুনরায় বাড়ীতে এসে তারা মারপিটসহ বাড়ীর বেড়া ভাংচুর করে বলে মামলায় উল্লেখ করা হয়। এসময় প্রতিপক্ষের মারপিটে আহত হয় মিনারা,তার স্বামী ফজলুল করিম ভুইয়া,ভাই জয়নাল,রহমত,তার মা মহছেনা বেগম এবং তার ছোট ভাইয়ের স্রী শিল্পী  বেগম। 

এদের মধ্যে গরুতর আহত অবস্থায় একজন মহিলাকে রমেক হাসপাতালে নেয়া হয়েছিল।

 এব্যাপারে শিক্ষক কাজী  মিজানুর রহমান, কার ভাই কাজী আলা উদ্দিন,কাজী সালা উদ্দিন, আঃ রহিম এবং সামস উদ্দিনের ছেলে কাজী ইব্রাহিমকে আসামী করে ১০মে/২০ ইং তারিখে  থানায় মামলা দায়ের করা হয়।

মামলার প্রায় দেড় মাস  হলেও এখন পর্যন্ত পুলিশ কোন আসামীকে গ্রেফতার করছেননা  বলে বাদী ফজলুল করিম ভুইয়া জানান।তার দাবি আসামীদের দ্রুত গ্রেফতার করে শাস্তির আওতায় আনা হোক।

স্থানীয়রা বলছেন,অন্যায় ভাবে মারপিট করেছে এর একটা বিহিত হওয়ার দরকার,এছাড়া বরাবরই ঐ পরিবারের উপর হামলা করেন মিজানুর গং বলে দাবী এলাকাবাসীর।

মুঠোফোনে যোগাযোগ করলে ঠাকুরবাড়ী বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মিজানুর রহমান ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন,আমি ঈদগাহ মাঠের সম্পাদক আর এবিষয়ে  নিউজ করার কোন প্রয়োজন নেই। 

আর এই সমস্যা মিমাংসা হয়েছে। মামালার বাদী জানান-আমাদের সাথে কোন মিমাংসা হয়নি।বরং তার তৈরীকৃত সন্ত্রাসী বাহিনী বরাবরই হত্যা ও মারপিটের হুমকি দিচ্ছে।এমতাবস্থায় প্রধামন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করছেন ভুক্তভোগী পরিবার।  


মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা মিঠাপুকুর থানার এসআই রফিকুল ইসলাম রফিক বলেন,সময় সাপেক্ষে আসামী গ্রেফতার করা হবে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য