কক্সবাজারের “রেড জোনে” আরো কঠোর হচ্ছে স্বেচ্ছাসেবকরা

আক্তার কামাল সোহেলঃ
কক্সবাজার শহরে রেড জোনের লকডাউন কার্যক্রম আরো কঠোর হচ্ছে সেচ্ছাসেবকরা। ১২ জুন শুক্রবার থেকে সেচ্ছাসেকদের আরো কঠোর হতে নির্দেশ দিয়েছেন সেচ্ছা সেবক দলের প্রধান কক্সবাজার পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি নজিবুল ইসলাম। লকডাউনের শেষ দিন ২০ জুন পর্যন্ত এই কঠোরতা অব্যহত থাকবেন বলে জানান নজিবুল ইসলাম।

নজিবুল ইসলাম বলেন, কক্সবাজার শহরে করোনার সংক্রামন কমাতে প্রশাসন রেড জোন ঘোষনা করেছে। রেড জোনে ২০ জুন পর্যন্ত লকডাউন চলছে। লক ডাউনে শুধু মাত্র জরুরী চিকীৎসা সেবা ছাড়া মানুষকে চলাচলের নিষেধাজ্ঞ আরোপ করেছে জেলা প্রশাসন। সপ্তাহে দুইদিন স্বাস্থ্য বিধি মেনে বাজার খোলা রাখা হচ্ছে। কক্সবাজার পৌর আওয়ামীলীগের ৩৫ টি টিমের ১৮০ জন সেচ্ছাসেবক জীবনের ঝুকি নিয়ে লকডাউন বাস্তবায়নে কাজ করে যাচ্ছে। প্রশাসনের সাথে সেচ্ছাসেবকদের কার্যক্রমের চিত্র আপনারা দেখছেন। সেচ্ছাসেবকার ঝুকি নিয়ে সর্বোচ্চ ভদ্রতা ও সামাজিকতা বজায় রেখে কাজ করছে।

নজিবুল ইসলাম বলেন, সেচ্ছাসেবকদের নিয়ে একটি মহল বিতর্ক সৃষ্টির পায়তারা করছে। সেচ্ছাসেবকরা আপনাকে-আমাকে সকলকে করোনা ভাইরাস থেকে রক্ষা করতে কাজ করছে। তাদের কার্যক্রমকে উৎসাহিত করুন। ২০ জুন পর্যন্ত ঘরে থাকুন।

সেচ্ছাসেবক দলের প্রধান নজিব আরো বলেন, শুক্রবার থেকে সেচ্ছাসেকরা আরো কঠোর হতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। যদি কেউ বিনা কারণে ঘরথেকে বেরহন তাহলে তাদের ঘরে ফেরত যেতে বাধ্য করা হবে।করোনার রেড জোনকে গ্রীন জোনে আনতে সম্মিলিত ভাবে চেস্টা করা হচ্ছে। প্রশাসনের নির্দেষ মেনে আপনারা ঘরে থাকলে, সেচ্ছাসেবকদের কঠোর হতে হবেনা

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য