উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা সহকারী(প্রাক্তন টিএফপিএ) সমিতির ভার্চুয়াল সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত

রংপুর ব্যুরো অফিসঃ বাংলাদেশ উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা সহকারী সমিতির কেন্দ্রীয় নির্বাহী পরিষদের সাধারণ সভা শুক্রবার (২৯মে) অনুষ্ঠিত হয়েছে। দেশের সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনা করে অনলাইনে (জুম প্ল্যাটফর্মে) সমিতির সভাপতি জাহাঙ্গীর আলমের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক মামুনুর রশীদের স ালনায় সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভার শুরুতেই পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন মঞ্জুরুল হক মানিক (গোবিন্দগঞ্জ, গাইবান্ধা) এবং পবিত্র গীতা পাঠ করেন  অনুপম পুরকায়স্থ (সুনামগঞ্জ)। সভার শুরুতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন, সমিতির সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম। তিনি তার বক্তব্যে বলেন, দেশের এই করোনা পরিস্থিতিতে সরকার ঘোষিত সাধারণ ছুটি থাকলেও আমাদের সকল সহকর্মীরা তাদের উপর অর্পিত দায়িত্ব প্রতিদিন পালন করে যাচ্ছে। এবং আমাদের বিভাগ ছুটির আওতামুক্ত। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ঘোষিত প্রণোদনা প্যাকেজে উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা সহকারী(প্রাক্তন টিএফপিএ) পদধারীদের অন্তর্ভুক্ত করার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের নিকট জোর দাবি জানান। এছাড়াও গ্রেডেশন তালিকা হালনাগাদ করা, সিলেকশন গ্রেডসহ সংগঠনের অন্যান্য বিস্তারিত কার্যক্রম উপস্থাপন করেন। এক‌ই সাথে সংগঠনের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে প্রতি উপজেলায় কর্মরত তিনজন উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা সহকারী(প্রাক্তন টিএফপিএ)’র মধ্যে একজনকে পিপিই প্রদান করায় উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন এবং অবশিষ্ট দুইজন (প্রতি উপজেলায়) সহকর্মীকে ব্যক্তিগত সুরক্ষা সামগ্রী প্রদানের অনুরোধ জানান। এ পর্যায় একজন সহকর্মী আবুল খায়ের,(ইসলামপুর, জামালপুর) এর মৃত্যুতে ও আরো অনেক সহকর্মীর আত্মীয় স্বজনের মৃত্যুতে সর্বসম্মতিক্রমে শোক প্রস্তাব গৃহিত হয়। এ পর্যায়ে সাধারণ সম্পাদক তার বক্তব্যে পদবী পরিবর্তন, প্রণোদনা ও অন্যান্য সাংগঠনিক বিষয়ে বিস্তারিত বক্তব্য রাখেন। অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, অনুপম পুরকায়স্থ (সুনামগঞ্জ), সাদেক আনোয়ার (রংপুর), সুমনা পারভীন (রংপুর), মোজাম্মেল হোসেন (নাটোর), নূরে আলম জিকু (শরীয়তপুর), খায়রুল ইসলাম (পাবনা), পার্থ দেব (কুমিল্লা), লাভলী দাস (ঢাকা), মাসুদ পারভেজ (নাটোর), সুমাইয়া ইসলাম (নাটোর), মনোয়ার হোসেন লেবু (নাটোর), মোস্তফা কামাল অভি (চাঁদপুর), ইউসুফ হোসেন (চাঁপাইনবাবগঞ্জ), নাহিদুল হক (চাঁপাইনবাবগঞ্জ), রিয়াদুজ্জামান (নারায়ণগঞ্জ), হায়দার আলী (মানিকগঞ্জ), ওয়ালীউল্লাহ জয় (কুমিল্লা), মতিউর রহমান (কুমিল্লা), মাহমুদুল হাসান (সুনামগঞ্জ), সীবেন দাস(সিলেট), হাসানুর রশীদ (বগুড়া), জুল হাসান (বগুড়া), মিজানুর রহমান (ন‌ওগা), সুপায়ন চাকমা (পার্বত্য রাঙামাটি), এস এম জাকারিয়া হোসেন (সিরাজগঞ্জ), মাহবুবা আক্তার ( নারায়ণগঞ্জ), আব্দুল মোক্তাদির (মৌলভীবাজার), আক্তার হোসেন (নরসিংদী), আরিফুল হক (ফেনী), আজাদুর রহমান ( চট্টগ্রাম), বরুন কান্তি বিপ্র (নেত্রকোনা), নাঈম পারভেজ (ময়মনসিংহ), আশরাফুজ্জামান (শেরপুর), হাবিবুর রহমান (গাজীপুর) মঞ্জুরুল হক (গাইবান্ধা) প্রমূখ। প্রায় তিন ঘন্টাব্যাপী আলোচনা সভায় প্রায় ৭৬জন সদস্য তাদের মতামত তুলে ধরেন এবং বিভিন্ন পরামর্শ প্রদানসহ দাবি আদায় সব ধরনের সহযোগিতার আশ্বাস দেন। অনুষ্ঠানে ভার্চুয়ালি উপস্থিত প্রায় ১৫২জন সদস্যের সবাই ডিজিটাল প্রযুক্তির ব্যবহারে উক্ত ভার্চুয়াল সভা উপভোগ করেন। এমন আয়োজনের জন্য কেন্দ্রীয় নির্বাহী পরিষদকে ধন্যবাদ জানান এবং এ ধারা অব্যাহত রাখার অনুরোধ করেন।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য