কক্সবাজার শহরের বাঁকখালী নদী তীর নুনিয়াছড়া এলাকা থেকে দালালসহ ২৯ জন রোহিঙ্গাকে উদ্ধার করেছে পুলিশ।

সাগরঃ
শনিবার (২ মে) সকালে খবর পেয়ে নুনিয়াছড়া প্যারাবন থেকে তাদের উদ্ধার করা হয়। উখিয়ার রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে সাগর পথে ট্রলার করে তাদের মালয়েশিয়া নেওয়ার কথা বলে কক্সবাজার নুনিয়াছড়া এলাকায় নামিয়ে দেন দালাল চক্র। বিষয়টি  নিশ্চিত করেছেন কক্সবাজার সদর মডেল থানার এসআই আরিফ উল্লাহ।

এসআই আরিফ উল্লাহ বলেন, একদল রোহিঙ্গা নুনিয়াছড়া এলাকায় জড়ো হওয়ার খবর পেয়ে শনিবার সকালে সেখানে অভিযান চালানো হয়েছে। অভিযানে নদীরতীর থেকে ২৯ জন রোহিঙ্গাকে উদ্ধার করা হয়েছে। এরমধ্যে ৬ জন শিশু ও একজন দালালও রয়েছে।

তিনি আরও বলেন, তারা সবাই উখিয়া ক্যাম্পের পুরাতন রোহিঙ্গা। একদিন আগে তারা মালয়েশিয়া যাওয়ার জন্য ট্রলারে উঠেন। রাতভর সাগরে বিচরণ করে শনিবার সকালে মালয়েশিয়া পৌঁছেছে বলে কক্সবাজার নুনিয়াছড়া নদীর তীরে তাদের নামিয়ে দেওয়া হয় ট্রলার থেকে। পরে উদ্ধারকৃত এসব রোহিঙ্গাদের জিজ্ঞাসাবাদের জন্য কোস্টগার্ডে হস্তান্তর করা হয়েছে। পরবর্তীতে দালালসহ এই রোহিঙ্গাদের ভাসানচড়ে পাঠানো হবে বলে জানা গেছে। পুলিশ।

শনিবার (২ মে) সকালে খবর পেয়ে নুনিয়াছড়া প্যারাবন থেকে তাদের উদ্ধার করা হয়। উখিয়ার রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে সাগর পথে ট্রলার করে তাদের মালয়েশিয়া নেওয়ার কথা বলে কক্সবাজার নুনিয়াছড়া এলাকায় নামিয়ে দেন দালাল চক্র। বিষয়টি  নিশ্চিত করেছেন কক্সবাজার সদর মডেল থানার এসআই আরিফ উল্লাহ।

এসআই আরিফ উল্লাহ বলেন, একদল রোহিঙ্গা নুনিয়াছড়া এলাকায় জড়ো হওয়ার খবর পেয়ে শনিবার সকালে সেখানে অভিযান চালানো হয়েছে। অভিযানে নদীরতীর থেকে ২৯ জন রোহিঙ্গাকে উদ্ধার করা হয়েছে। এরমধ্যে ৬ জন শিশু ও একজন দালালও রয়েছে।

তিনি আরও বলেন, তারা সবাই উখিয়া ক্যাম্পের পুরাতন রোহিঙ্গা। একদিন আগে তারা মালয়েশিয়া যাওয়ার জন্য ট্রলারে উঠেন। রাতভর সাগরে বিচরণ করে শনিবার সকালে মালয়েশিয়া পৌঁছেছে বলে কক্সবাজার নুনিয়াছড়া নদীর তীরে তাদের নামিয়ে দেওয়া হয় ট্রলার থেকে। পরে উদ্ধারকৃত এসব রোহিঙ্গাদের জিজ্ঞাসাবাদের জন্য কোস্টগার্ডে হস্তান্তর করা হয়েছে। পরবর্তীতে দালালসহ এই রোহিঙ্গাদের ভাসানচড়ে পাঠানো হবে বলে জানা গেছে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য