ডোমারে ১৪ শত পরিবারকে খাদ্য সহায়তা দিলেন মাও: মঞ্জুরুল ইসলাম


রতন কুমার রায়,স্টাফ রির্পোটার: নীলফামারীর ডোমার উপজেলায় জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশ এর কেন্দ্রীয় যুগ্ন-সহাসচিব ঢাকা মহানগর সভাপতি মাও: মঞ্জুরুল ইসলাম আফেন্দীর পক্ষ হতে কর্মহীন প্রায় ১৪ শত পরিবারের মাঝে খাদ্য সহায়তা দেওয়া হয়েছে। তার লোকজন রাতের বেলায় মধ্যবিত্ত কর্মহীনদের বাড়িতে দিনের বেলায় দুঃস্থ গরিবদের বাড়িতে গিয়ে খাদ্য সহায়তা দেয়। বুধবার পর্যন্ত ১৪ শত পরিবারের মাঝে খাদ্য সহায়তা দেওয়া হয়। খাদ্য সহায়তায় পৃষ্ঠপোষকতা করে তার ভাই প্রবাসী ইঞ্জিনিয়ার জাহিদুল ইসলাম মুন।
খাদ্য সামগ্রীর মধ্যে ছিল, কেজি চাল, কেজি ডাল, তিন কেজি আলু, ১কেজি পিঁয়াস, লিটার তেল, কেজি ময়দা, প্রকার সেমাই, মুড়ি আধা কেজি আধা কেজি ছোলা। বিতরণ কাজে অংশ নেন, জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশ এর ডোমার উপজেলা শাখার সহ-সভাপতি মাও: ফজলুর রহমান, যুব জমিয়ত উপজেলা শাখার সাধারন সম্পাদক জাহিদুল ইসলাম, ডোমার কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের ইমাম মাহমুদ বীন আলম, সংগঠক তাজুল ইসলাম, মাও: আব্দুর রাকিব, মঞ্জুরুল ইসলাম শাহিন, গোলাম ফারুক, আমজাদ হোসেন, আবু সাজেদ নোমান, সোহাগসহ সংগঠনের নেতাকর্মীরা। ডোমার কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের ইমাম মাহমুদ বীন আলম জানান, অনেক মধ্যবিত্ত লজ্জ্বায় কারো কাছে ত্রান চাইতে পারেন না। তাই রকম মধ্যবিত্ত পরিবারের মাঝে রাতের বেলায় আমরা তাদের বাড়িতে গিয়ে খাদ্য সহায়তা দিয়ে আসছি। আর গরিবদের মাঝে দিনের বেলায় খাদ্য সহায়তা দিচ্ছি। মাও: মঞ্জুরুল ইসলাম আফেন্দী জানান, আমি এলাকায় যেতে না পারলেও আমার লোকজন দিয়ে এখন পর্যন্ত ডোমার ১৪ জন কর্মহীনদের মাঝে খাদ্য সহায়তা দিয়েছি। ডোমার-ডিমলা মিলে মোট তিন হাজার পরিবারের মাঝে খাদ্য সহায়তা পৌছে দেওয়া হবে। তিনি জানান, সমাজের বিত্তবানরা যদি কর্মহীনদের পাশে থাকে, তবে আমরা করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলা করতে পারবো।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য