ছেলের পাওনা টাকা চাইতে গিয়ে লাশ হয়ে ফিরল বাবা

ডেস্ক নিউজঃ 
শেরপুরে শ্রীবরদী উপজেলার ভায়াডাংগা দড়িপাড়া গ্রামে ছেলের পাওনা টাকা চাইতে গিয়ে লাশ হয়ে ফিরল কৃষক বাবা আবদুল্লাহ ওরফে দোলা (৬৬)। সোমবার বিকেলে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় নিহতের দুই ছেলে নিয়ামত (২৪) ও দিয়ানত (৩৫) এবং ভাই আব্দুল কাদের (৫০) আহত হয়ে শেরপুর জেলা হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। ঘটনায় জড়িত ওই গ্রামের মমতাজ ওরফে টারুসহ ২ জনকে আটক করেছে পুলিশ। আহত অবস্থায় তিনি জেলা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।
পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, পাওনা টাকা নিয়ে নিহতের ছেলে নিয়মত উল্লাহর সাথে মমতাজ ওরফে টারুর বিরোধ চলছিল। কিছুদিন আগে সালিস বসে টারুকে দ্রুত টাকা ফেরত দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়। কিন্তু তারপরও তালবাহানা করছিল টারু। সোমবার বিকালে আবদুল্লাহ তার দুই ছেলেকে নিয়ে টারুর কাছে টাকা চাইতে যান। কথাবার্তার একপর্যায়ে টারু লোকজন নিয়ে তাদের ওপর হামলা করে। একপর্যায়ে লাঠি দিয়ে আবদুল্লাহর মাথায় আঘাত করলে তিনি মাটিতে লুটিয়ে পড়েন এবং মারা যান। এ সময় নিহতের দুই ছেলে বাবাকে উদ্ধার করতে গেলে সংঘর্ষ বাঁধে। এতে উভয়পক্ষে অন্তত ৭ জন আহত হন। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠায় এবং মমতাজ ওরফে টারুসহ দুইজনকে আটক করে। 

ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে শ্রীবরদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. রহুল আমিন তালুকদার বলেন, এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। লাশ মর্গে পাঠানো হয়েছে। ঘটনায় জড়িত দুইজনকে আটক করা হয়েছে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য