র‌্যাবের সাথে গুলাগুলিতে ডাকাত সরর্দার নিহত: অস্ত্র ও গুলি উদ্ধার

সাখাওয়াত হোসাইনঃ  
কক্সবাজার টেকনাফের হ্নীলা ইউনিয়নের রোহিঙ্গা ক্যাম্প ও পাহাড়ী এলাকায় সক্রিয় স্বশস্ত্র ডাকাত দল নির্মূলে র‌্যাব সদস্যদের সাড়াঁশি অভিযানে বন্দুক যুদ্ধে কুখ্যাত ডাকাত সরর্দার নুরুল আমিন নিহত হয়। এসময় র‌্যাবের দুই সদস্য আহত হয় ও বিপূল পরিমাণ অস্ত্র, গুলি উদ্ধার করা হয়েছে।
র‌্যাব সুত্রে জানা যায়, ১০ ফেব্রুয়ারী (সোমবার) ভোররাত ৩টার দিকে র‌্যাব-১৫ (সিপিসি-১) টেকনাফ ক্যাম্পের একটি চৌকষ আভিযানিক দল উপজেলার হ্নীলা ইউনিয়নের পশ্চিম লেদা নরালী পাড়া পাহাড়ে গোলাগুলির সংবাদ পেয়ে ডাকাত বিরোধী সাড়াঁশি অভিযানে যায়। এসময় পাহাড়ে অবস্থান করা ৬/৭জন স্বশস্ত্র ডাকাত র‌্যাবকে লক্ষ্য করে গুলিবর্ষণ করলে র‌্যাবের ল্যান্সনায়েক আজহারুল ইসলাম এবং সিপাহী মোঃ সোহেল আহত হয়। পরে র‌্যাব সদস্যরাও সরকারী সম্পদ জীবন আত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলিবর্ষণ করলে স্বশস্ত্র দূবৃর্ত্তরা পাহাড়ের ভেতরে পালিয়ে যায়। পরে গোলাগুলি থেমে গেলে ঘটনাস্থল তল্লাশী করে ১টি থ্রি-কোয়ার্টার গান, ১টি ওয়ান শুটার গান, ৪টি তাঁজা কার্তুজ, ৩টি খালি খোসা, নগদ ১শ টাকাসহ মানি ব্যাগ, ১টি মোবাইল, মিয়ানমারের ১১টি এবং ১টি দেশীয় সিমকার্ড ও মোবাইলসহ গুলিবিদ্ধ অবস্থায় পাহাড়ে সক্রিয় থাকা ডাকাত দলের সরর্দার ডাকাক নুরুল আমিনকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য টেকনাফ উপজেলা সদর হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সে মারা যায়।
সংবাদের সত্যতা নিশ্চিত করেন র‌্যাব-১৫ এর তথ্য অধিদপ্তর শাখা।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য