কক্সবাজারে পাহাড় কাটার তথ্য সংগ্রহে ভূমিদস্যুদের হাতে সাংবাদিক আহত

মোঃ ওসমান গনি, বিশেষ সংবাদদাতাঃ 
কক্সবাজার সদরের ইসলামপুর ইউনিয়নে পাহাড় কাটার তথ্য সংগ্রহ করতে গিয়ে লাঞ্চনার শিকার হয়েছেন দুই সাংবাদিক। তারা হলেন জাতীয় দৈনিক বিশ্ব মানচিত্র পত্রিকার বিশেষ প্রতিনিধি ওয়াসিম মিয়া ও জে টিভির ক্যামরাম্যান এবং কক্সবাজার বাংলা নিউজ ডটকম এর জেলা প্রতিনিধি আরিফুল ইসলাম আশরাফ। জানাযায় কক্সবাজার সদরের ইসলামপুর ইউনিয়নের বটতলীতে দিনে-দুপুরে নির্বিচারে পাহাড়কাটার সংবাদ পেয়ে তথ্য সংগ্রহ করতে গিয়ে ভূমিদস্যুদের হাতে নির্যাতনের শিকার হয় এ দুই সাংবাদিক। এসময় পাহাড় কাটা দৃশ্য ধারণকৃত অবস্থায় অতর্কিত ভাবে হামলা চালিয়ে তাদের মোবাইল,ক্যামরা ও টাকা ছিনিয়ে নেয় ও জিম্মি করে রাখে। ভূমিদস্যু শাহাব উদ্দিন মেম্বার, নাছির উদ্দীন, সাহাব উদ্দিন ও আরিফ বাহিনীর ১০/১২জন সন্ত্রাসী। তখন বিশ্ব মানচিত্রের সাংবাদিক ওয়াসিম মিয়া তার সম্পাদককে বিষয়টি জানালে সম্পাদক ঈদগাঁও পুলিশ ফাঁড়ির সাথে যোগাযোগ করলে এ এস.আই মহিউদ্দিনের মাধ্যমে তাদেরকে উদ্ধার করে। 

জানা যায়, দীর্ঘদিন ধরে আরিফের নেতৃত্বে স্থানীয় মেম্বার সাহাব উদ্দিন ও তার ভাতিজা নাছির বেপরোয়া ভাবে বিভিন্ন অপকর্মের সাথে জড়িত থাকলেও তাদের বিরুদ্ধে মুখ খোলার সাহস পান না এলাকাবাসী। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক উক্ত ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী এক ব্যক্তি জানান, অপরাধীরা দীর্ঘ ২০ বছর ধরে বট্টলিস্থ ইসলাম শিল্প এলাকার শতশত লবন মিলের লবন আমদানী রফতানির ট্রাকের মাধ্যমে দেশের বিভিন্ন স্থানে অবৈধ মাদকদ্রব্য সরবারহ করে। এছাড়াও অনুমোদন বিহীন মায়ানমারের লবণ সাপ্লাই করে কালো টাকার পাহাড় সহ সন্ত্রাসী বাহিনী লালনপালন করে এলাকায় ত্রাশের রাজত্ব কায়েম করলেও তাদের বিরুদ্ধে কেউ কথা বলার সাহস পায় না। ভুলেও তাদের কু-কীর্তির বিরুদ্ধে কেউ প্রতিবাদ করলে তার উপর নেমে আসে অমানবিক নির্যাতন। এরই ধারাবাহিকতায় অবৈধ পাহাড় কাটার খবর পেয়ে সংবাদকর্মীরা তথ্য সংগ্রহ করতে গেলেই তাদের উপরও ক্ষীপ্ত হন এই আরিফ বাহিনী।

আরিফ ও জসিম বাহিনীর লোকজন দীর্ঘদিন ধরে পাহাড় কেটে বিলাসবহুল বাড়ি তৈরি করে এবং মাটি বিক্রয় করে আসছে। আরিফ ও জসিম মেম্বারকে সংবাদকর্মী পরিচয় দিলে তারা সব সাংবাদিকদের অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে।পাশাপাশি এই ঘটনা যেন কারো কাছে না বলে কোরআন মাথায় রেখে শপথ করায় এবং খালি স্টাম্পে সাক্ষর নেয়। এ ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন কক্সবাজার দুই বাংলা অনলাইন সাংবাদিক ফোরামের সদস্যবৃন্দরা। সাংবাদিক নেতারা অপরাধীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নিতে প্রক্রিয়া চলছে এবং ভুমিদস্যু বিরুধী মানবন্ধন আয়োজন করা হবে বলে জানিয়েছেন।

এই বিষয়ে হামলা শিকার সংবাদকর্মীরা সংশ্লিষ্ট থানায় ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন বলে জানা যায়।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য