গুলিতে নিকেশ অর্ধেক, অস্ট্রেলিয়ায় ৫ হাজার উট খুন!

ডেস্ক নিউজঃ
ঘোষণা হওয়ার পর অপেক্ষা করতে হল না বেশি দিন। কথা রাখল অস্ট্রেলিয়া সরকার। টানা ৫ দিন ধরে অস্ট্রেলিয়ায় গুলি করে মারা হল ৫,০০০ বন্য উটকে। বাকি রয়েছে আরও পাঁচ হাজার। আপাতত ১০,০০০ উট মারার পরিকল্পনা নিয়েছে অস্ট্রেলিয়া সরকার। বিপুল সংখ্যক উটকে মারার জন্য ভাড়া করা হয়েছে শার্প শ্যুটার।
দাবানলের সময় অস্ট্রেলিয়ার উটেরা প্রচুর জল খাচ্ছে। সেই কারণে হাজার হাজার উটকে মেরে ফেলার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল সে দেশের প্রশাসন। সেই নিধন-যজ্ঞই শুরু হয়ে গিয়েছে।
দ্য হিল তাদের প্রতিবেদনে জানিয়েছে, হেলিকপ্টারে শ্যুটার পাঠিয়ে অন্তত ১০,০০০ উটকে মেরে ফেলবে সরকার। সংবাদমাধ্যমটি জানিয়েছে, অস্ট্রেলিয়ার দক্ষিণাঞ্চলীয় খরাপ্রবণ এলাকা জল স্বল্পতায় ভুগছে। অথচ এই অঞ্চলে বেশি পরিমাণে জল খেয়ে ফেলছে উট। এ ছাড়াও সেগুলো বছরে এক টন কার্বন ডাই অক্সাইডের সমপরিমাণ মিথেন গ্যাস নির্গমন করে উষ্ণায়নে অংশ নিচ্ছে।
অস্ট্রেলিয়ার সংবাদমাধ্যম দি অস্ট্রেলিয়ানের মতে, অস্ট্রেলিয়ার এক আদিবাসী নেতার নির্দেশে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। দেশের দক্ষিণাঞ্চলের স্থানীয় সরকার কর্তৃপক্ষ আনানজু পিতজানৎজাতজারা ইয়ানকুনিৎজাতজারা ল্যান্ডস-এর (এওয়াইপি) কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য মেরিতা বাকের দি অস্ট্রেলিয়ানকে বলেছেন, 'প্রচণ্ড গরমে স্থানীয়রা অসহনীয় অবস্থায় আছে। এর মধ্যে উটগুলো আরও বেশি অস্বস্তিকর পরিবেশ তৈরি করছে। জলের খোঁজে তারা বাড়ির এসির ভেতরে মুখ ঢুকিয়ে দিচ্ছে।'
অস্ট্রেলিয়ায় অবশ্য উট প্রথম গিয়েছিল ভারত থেকেই। সেটা ১৮৪০ সালে। ভারতে থেকে অস্ট্রেলিয়ায় পাঠানো হয়েছিল ২০,০০০ উট। অথচ বর্তমানে ভারত নয়, বর্তমানে দুনিয়ার সবচেয়ে বেশি উট অস্ট্রেলিয়াতেই। প্রায় ১০ লক্ষ উট রয়েছে সেখানে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য