রাজাপুরের জীনের রানী আসিয়া খাতুন গ্রেফতার

সৈয়দ রুবেল, ঝালকাঠি সংবাদদাতাঃ 
ঝালকাঠি রাজাপুর উপজেলার জীনের রানি আসিয়া খাতুন গ্রেফতার। 

জিনের ভয় দেখিয়ে ৪ লাখ ২০ হাজার টাকা ও সাড়ে ১১ ভরি সোনা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগে জীনের রানি আসিয়া খাতুনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এসময় তার পিতা মন্নাফ সিকদার এবং ভাই কাওসার সিকদারকেও গ্রেফতার করা হয়।

৩ জানুয়ারী শুক্রবার  বিকেলে গ্রেফতার কৃত তিনজনকে ঝালকাঠি আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়।

এর আগে রাজাপুর উপজেলার মনোহরপুর গ্রামের সাবেক স্কুল শিক্ষক মৃত মোকসেদ আলীর স্ত্রী আম্বিয়া খাতুন বাদি হয়ে ৫ জনের নামে বৃহস্পতিবার ০২ জানুয়ারী  তারিখ  রাতে রাজাপুর থানায় এ মামলা করলে পুলিশ রাতেই ৩ আসামিকে গ্রেফতার করে। 

অপর আসামি ফরিদ সিকদার ও ইব্রাহিম জিনের রাণী আসিয়া খাতুনের ভাই।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, মামলার ১ নম্বর আসামি আসিয়া খাতুন নিজেকে কোরআনের হাফেজ দাবি করে বাবা মন্নাফের বাড়িতে এলাকার মহিলাদের নিয়ে কয়েক বছর ধরে তালিমের মাধ্যমে কোরআন শিক্ষাসহ বিভিন্ন হাদিসের মাধ্যমে ইসলামের দাওয়াত প্রচার করে এবং মাঝে মধ্যে তার কাছে জিন আসে এই কথা বলে নানা অযুহাতে টাকা ও সোনা হাতিয়ে নিতে শুরু করে। 

পরবর্তীতে জিনের ভয় দেখিয়ে টাকা ও সোনা হাতিয়ে নেয়। মামলার বাদি আম্বিয়া খাতুনকে বিভিন্নভাবে জিনের ভয়ভীতি দেখিয়ে প্রতারণার মাধ্যমে বিভিন্ন সময় আসিয়া খাতুন ৪ লাখ ২০ হাজার টাকা এবং সাড়ে ১১ ভরি সোনার গয়না হাতিয়ে নেয়।

ভুক্তভোগী আম্বিয়া খাতুনের ছেলে অভিযোগ করে জানান. তার মা আম্বিয়া খাতুন সহজ সরল হওয়ায় বিভিন্নভাবে জিনের ভয়ভীতি দেখিয়ে প্রতারণার মাধ্যমে আসামি আসিয়া খাতুন ৪ লাখ ২০ হাজার টাকা এবং সাড়ে ১১ ভরি সোনার গহনা হাতিয়ে নেয়।

রাজাপুর থানার ওসি জাহিদ হোসেন জানান, মামলার ৩ আসামিকে গ্রেফতার করে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে এবং বাকি আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য