৯৩০০০ প্রবাসী বাংলাদেশী কর্মীর ভিসার মেয়াদ উত্তীর্ণ- পররাষ্ট্রমন্ত্রী

৯৩০০০ প্রবাসী বাংলাদেশী কর্মীর ভিসার মেয়াদ উত্তীর্ণ- পররাষ্ট্রমন্ত্রী

ভিসার মেয়াদ শেষ হয়ে যাওয়ায় ৯৩ হাজারেরও বেশি বাংলাদেশি প্রবাসী কর্মী অবৈধভাবে সংযুক্ত আরব আমিরাত, কুয়েত, দক্ষিণ কোরিয়া এবং ইরানে আছেন বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আবদুল মোমেন। রোববার জাতীয় সংসদে সরকার দলীয় সাংসদ এম আবদুল লতিফের তারকাচিহ্নিত প্রশ্নের জবাবে এই কথা বলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী।
পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আবদুল মোমেন
ডেস্ক রিপোর্টঃ 
ভিসার মেয়াদ শেষ হয়ে যাওয়ায় ৯৩ হাজারেরও বেশি বাংলাদেশি প্রবাসী কর্মী অবৈধভাবে সংযুক্ত আরব আমিরাত, কুয়েত, দক্ষিণ কোরিয়া এবং ইরানে আছেন বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আবদুল মোমেন। রোববার জাতীয় সংসদে সরকার দলীয় সাংসদ এম আবদুল লতিফের তারকাচিহ্নিত প্রশ্নের জবাবে এই কথা বলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আরব আমিরাত এবং দুবাইয়ে ৮০ হাজার, কুয়েতে পাঁচ হাজার, মিশরে চার হাজার, দক্ষিণ কোরিয়ায় আড়াই হাজার এবং ইরানে দেড় হাজার বাংলাদেশি কর্মী মেয়াদোত্তীর্ণ ভিসা নিয়ে বসবাস করছেন। এই ৯৩ হাজার ছাড়াও আরও অনেক দেশে বাংলাদেশের প্রবাসী কর্মী আছেন, যাদের ভিসার মেয়াদ শেষ হয়ে গেছে। তবে তাৎক্ষণিকভাবে সঠিক সংখ্যাটা জানানো যাচ্ছে না।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পররাষ্ট্রনীতি ও মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশ হাইকমিশনের প্রচেষ্টায় ২০১৬ থেকে ২০১৮ সালের মধ্যে মালয়েশিয়ায় কাজ করার বৈধতা পাওয়ার জন্য ছয় লাখ বাংলাদেশি আবেদন করেছেন। এই ছয় লাখের মধ্যে চার লাখ বাংলাদেশি কর্মী মালয়েশিয়ায় কাজ করার বৈধতা পেয়েছে উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, এখন মালয়েশিয়াতে বৈধতার জন্য আবেদনের কোনো সুযোগ নেই।

এ কে আবদুল মোমেন বলেন, মালয়েশিয়ার সরকার অবৈধ শ্রমিকদের জন্য সাধারণ ক্ষমা ঘোষণা করার পর গত পাঁচ মাসে ৫২ হাজার বাংলাদেশি কর্মী দেশে ফিরেছেন।
সৌদি আরবের বিষয়ে বলতে গিয়ে মন্ত্রী বলেন, গত ২২ ডিসেম্বর সৌদি সরকার সে দেশে থাকা অবৈধ শ্রমিকদের নিজ নিজ দেশে ফেরত আসার জন্য স্পেশাল এক্সিট প্রোগ্রাম ঘোষণা করেছে। এর অংশ হিসেবে জেদ্দায় অবস্থিত বাংলাদেশ দূতাবাস সৌদি সরকারের ঘোষণা মেনে বাংলাদেশি কর্মীদের সহায়তা করে যাচ্ছে। এ স্পেশাল এক্সিট প্রোগ্রামের আওতায় যে সব বাংলাদেশি কর্মী ফিরে এসেছেন, তাঁরা বৈধ ভিসা নিয়ে আবার সৌদি আরবে যেতে পারবেন বলেও জানান পররাষ্ট্রমন্ত্রী।
/প্রথম আলো। 

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য