মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার ও রোহিঙ্গা নারীর নাগরিকত্ব বাতিলের দাবীতে খুরুশকুলে মানবন্ধন

প্রেস বিজ্ঞপ্তিঃ
প্রতিবন্ধি আবুল হাসানের বিরুদ্ধে দায়ের করা মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার ও রোহিঙ্গা নারী শাহিনার নাগরিকত্ব বাতিলের দাবীতে ৪ অক্টোবর জুমার নামাজের পর কক্সবাজার সদরের খুরুশকুলের সর্বস্তর জনতার মানববন্ধন ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। খুরুশকুল উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক মাষ্টার দেলোয়ার এর পরিচালনায় অনুষ্ঠিত মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভায় বক্তব্য রাখেন ছাত্রনেতা মোঃ নুরুদ্দীন শাহী,  খুরুশকুল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সভাপতি জনাব মনসুর আলম, সিরাজুল হক সর্দার, মৌঃ আবুল ফজল, মাষ্টার মহিউদ্দীন, হাফেজ একরাম প্রমুখ।
 
উক্ত মানব বন্ধন ও সমাবেশে বক্তারা বলেন, গত ২৪ সেপ্টেম্বর কক্সবাজার সদরের খুরুশকুল ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের আওতাধীন কুতুবজুরী এলাকায় প্রতিবন্ধি আবুল হাসানকে রোহিঙ্গা নারী শাহিনা খাবারের দাওয়াত দিয়ে তার বাসায় নিয়ে যায়। পূর্ব পরিকল্পিত ভাবে অর্থের লোভে এ রোহিঙ্গা নারী শাহিনা'র সহযোগিরা অন্যায় ভাবে শারীরিক ভাবে নির্যাতন করে। একপর্যায়ে মিথ্যা যৌন হয়রানীর অপবাদ দিয়ে আবুল হাসান'কে পুলিশের হাতে তুলে দেয়। পরে ঐ রোহিঙ্গা নারী শাহিনা বাদী হয়ে কক্সবাজার সদর মডেল থানায় প্রতিবন্ধি আবুল হাসানের বিরুদ্ধে একটি নারী ও শিশু নির্যাতনের মিথ্যা মামলা দায়ের করে তাকে কারাগারে প্রেরণ করা হয়।

বক্তরা আরো বলেন, এ রোহিঙ্গা নারী শাহিনা একজন পতিতা। সে অর্থের লোভে প্রতিবন্ধি এ আবুল হাসানের বিরুদ্ধে এমন মিথ্যা বানোয়াট ঘটনা সাজিয়ে মামলা দায়ের করেন। আবুল হাসান একজন মানসিক ভারসাম্যহীন ও তার একটি হাত সম্পূর্ণ নাই। আবুল হাসান এমন অনৈতিক কর্মকাণ্ডের সাথে কখনো জড়িত ছিল না এবং বর্তমানেও কোন প্রকার জড়িত নাই। তাই উক্ত মিথ্য মামলা প্রত্যাহার ও রোহিঙ্গা নারী শাহীনা'র নাগরিকত্ব বাতিল সহ শাস্তির জোর দাবি জানান।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য