হিন্দি নাটকের আদলে পঞ্চগড়ে নিজেকে নিয়ে স্ত্রীর কাছে অপহরণ নাটক


মোঃ কামরুল ইসলাম কামু,পঞ্চগড়ঃ

পঞ্চগড়ে অপহরণের নাটক সাজিয়ে বউয়ের কাছে এক লাখ টাকা মুক্তিপন দাবি করে পুলিশের কাছে ধরা খেয়েছেন হাবিুবুর রহমান (২৯) নামে এক যুবক। পরিবারের পক্ষ থেকে পঞ্চগড় সদর থানায় সাধারণ ডায়েরির পর সোমবার রাতে (২৬ এপ্রিল) টাঙ্গাইলের একটি আবাসিক হোটেল থেকে তাকে উদ্ধার করে পুলিশ। হাবিুবুর রহমান পঞ্চগড় পৌরসভার পূর্ব জালাসিপাড়া মহল্লার লেবু মিঞার ছেলে। পেশায় তিনি একজন পোল্ট্রি মুরগীর খামারি।

পুলিশ ও হাবিবুরের পরিবার জানায়, ১২ এপ্রিল দুপুরের পর ব্যক্তিগত কাজের কথা বলে বাসা থেকে বের হয় হাবিবুর রহমান। এরপর থেকে তার ব্যবহৃত মোবাইল ফোনটি বন্ধ ছিল। আকশ্মিক তার নিখোঁজের ঘটনায় আতঙ্কিত হয়ে পড়েন তার পরিবার। এরপর ১৬ এপ্রিল হাবিবুর তার স্ত্রী আছিয়া বেগমের কাছে নতুন একটি মোবাইল নম্বর দিয়ে ফোন করে বলেন, ‘তাকে অপহরণ করা হয়েছে এবং মুক্তিপন হিসেবে এক লাখ টাকা দিতে হবে।এ ঘটনায় ১৮ এপ্রিল তার বাবা লেবু মিঞা পঞ্চগড় সদর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন। এরপর তথ্যপ্রযুক্তির ব্যবহার ও পুলিশের বিশেষ অভিযানের মাধ্যমে সদর থানা পুলিশ ২৬ এপ্রিল রাতে টাঙ্গাইল জেলা শহরের একটি আবাসিক হোটেল তাকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে তিনি দেনার জন্য আত্নগোপনে গিয়ে অপহরণ ও মুক্তিপন আদায়ের নাটক সাজিয়েছেন বলে জানান।

হাবিবুরের স্ত্রী আছিয়া বেগম বলেন, আমি একজন গৃহিনী। আমার হাতে আসলে এতো টাকা নেই। পোল্ট্রি ব্যাবসায় লোকসানের কারণে তার ধার-দেনা রয়েছে। কিন্তু এই দেনার কারণে তিনি এমন করবেন, আমি স্বপ্নেও ভাবিনা।সদর থানা পুলিশেরর ওসি আবু আককাছ আহমেদ বলেন, হাবিবুর আত্নগোপনে থেকে স্ত্রীর কাছে অর্থ আদায়ে অপহরণের নাটক সাজিয়েছেন। সাধারণ ডায়েরির পর বিষয়টি সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে তদন্ত করা হয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদে তিনি দেনার জন্য অপহরণ ও মুক্তিপনের নাটক সাজানোর কথা জানান। টাঙ্গাইলের একটি আবাসিক হোটেল থেকে উদ্ধার করা হয় এবং তাকে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য