টেন্ডার ছাড়াই সরকারি গাছের ডাল কর্তন


শরিফা বেগম শিউলী রংপুর প্রতিনিধিঃ

রংপুর নগরীর ২২ নং ওয়ার্ডে বালাপাড়া রেলগেট সংলগ্ন ২০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ কেন্দ্রে (পিডিবি) স্টাফ কোয়ার্টারের ভিতরে কোন প্রকার টেন্ডার ছাড়াই সরকারি গাছের মোটা মোটা ডালগুলো কেটে বিক্রয় করেছে অফিস স্টাফরা। মঙ্গলবার (০৯ মার্চ) সকাল থেকে ২০ মেগাওয়াট  বিদ্যুৎ কেন্দ্রের স্টাফ কোয়ার্টারের ভিতরে  টেন্ডার ছাড়াই সরকারি গাছের ডালগুলো কেটে ফেলছে। 

সরেজমিনে গিয়ে স্থানীয় ও অফিস স্টাফ সূত্রে জানা যায়, অফিস স্টাফরা টেন্ডার ছাড়াই সরকারি গাছগুলোর ডাল কেটে বিক্রিয় করেছে বাহিরের প্রতিষ্ঠানের কাছে । ২০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ কেন্দ্রে অফিসার দের সংগে কথা বলার জন্য গেটে নক করে প্রবেশ করলে দারোয়ান বলেন অফিসে কোন স্যাররা নাই। দারোয়ানকে জিজ্ঞাসা করলে বলে ম্যানেজার স্যার সহ অফিসের সবাই জরুরী কাজে বাহিরে আছেন কন্টাক্ট নম্বর চাইলে বলে আমার কাছে কোন স্যারের নম্বর নাই।  

তথ্য সংগ্রহের জন্য গেট থেকে বাহিরে আসলে, পরবর্তীতে অফিসে ঢোকার জন্য গেটে নক করলে দারোয়ান বলে স্যারদের নির্দেশ আছে ভিতরে ঢোকা যাবে না। কোন স্যারের নম্বরও দেওয়া যাবে না।গাছের ডাল ক্রোতা বদরুল ইসলাম বিদ্যুৎ কে জিজ্ঞাসা করলে তিনি বলেন, একজন ১৮,০০০/- (আঠারো হাজার) টাকা দিয়ে গাছের ডাল গুলো কিনেছিল। কিন্ত  আমি ২,০০০/- (দুই হাজার) টাকা বেশি দিয়ে ২০,০০০/- (বিষ হাজার) টাকা দিয়ে গাছের ডালগুলো কিনেছি। তিনি টেন্ডারর বিষয়ে কিছু জানে না। 

টেন্ডার বিষয়ে ২০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ কেন্দ্রের সুপারভাইজার শফিকুল ইসলাম বলেন, এ বিষয়ে আমি কিছুই বলতে পারব না। স্যারদের সঙ্গে যোগাযোগ করেন তারাই বলতে পারবে। টেন্ডার বিষয়ে ২০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ কেন্দ্রের ম্যানেজার শংকর রায় কে ফোন দিলে বলেন, ওই গাছের নিচে একটা ক্লাবঘর আছে। গাছের ডালের জন্য ক্লাবঘরের ছাদ নষ্ট হয়ে যায়। ক্লাবঘর সংস্কারের জন্য গাছের ডালগুলো কেটে ফেলা হচ্ছে। গাছের ডালগুলো কেটে ফেলে অফিসের পাশে রেখে দিয়েছে বলে তিনি জানান।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য