বীরগঞ্জে নিষিদ্ধ সিনটা সহ আটক -২


মোঃ তোফাজ্জল হোসেন, বীরগঞ্জ (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ 

দিনাজপুরের বীরগঞ্জ পৌরশহরের মুক্তি মেডিক্যালস্ ফার্মেসীতে অভিযান চালিয়ে ৪০০ পিচ নিষিদ্ধ  সিনটা ঔষধ ও নগদ ১৫ হাজার ৫ শত ২৫ টাকা উদ্ধার করেছে দিনাজপুর ডিবি পুলিশ। বুধবার সন্ধ্যায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে দিনাজপুর ডিবি পুলিশের এসআই তানভীর হোসেনের নেতৃত্বে   ডিবি পুলিশের একটি দল অভিযান চালিয়ে ৪০০ পিচ নিষিদ্ধ সিনটা ঔষধ সহ ফার্মেসীর মালিক পৌরসভার ৪নং ওয়ার্ডের আজিজুল হকের ছেলে আতাউর রহমান বাদশা (৫৬) ও কাহারোল উপজেলার রসুলপুর গ্রামের আব্দুস ছামাদের ছেলে নজমুল ইসলাম (২৪) কে আটক করে।  

এস আই তানভীর জানায়, নিষিদ্ধ ঘোষিত মাদক সিনটা ঔষধ বিক্রি হচ্ছে এমন সংবাদ পেয়ে মুক্তি মেডিক্যালস্ ফার্মেসীতে অভিযান পরিচালনা করা হয়। এসময় ফার্মেসীতে ৪০০ পিচ সিনটা ও নগদ ১৫ হাজার ৫ শত ২৫ টাকা পাওয়া যায়। 

বিষয়টি নিশ্চিত করে বীরগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. আব্দুল মতিন প্রধান  জানান, অবৈধ ভাবে অনুমোদনবিহীন নিষিদ্ধ সিনটা নামক ব্যথানাশক ঔষধ বিক্রির দায়ে  গ্রেফতারকৃতদের বিরুদ্ধে বীরগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে, যার নং- ০৭, তাং- ১০/০২/২০২১ ইং।

উল্লেখ্য যে, বীরগঞ্জ পৌরশহরের মুক্তি মেডিকেল ঔষধ ফার্মেসী এবং উপজেলার ঝাড়বাড়ীহাট, বাহাদুর বাজার, ডাঙ্গারহাট, গোলাপগঞ্জ হাট, লাটেরহাট সহ বিভিন্ন এলাকায় অবাধে চলছে "সিনটা" নামক জীবন ঘাতি নেশা জাতীয় ও ব্যাথা নাশক ঔষধের পাইকারী এবং খূচরা বেচা-কেনা। ২০-৩০ টাকা মূল্যের এই নেশার ঔষধ আসক্তরা ব্লাকে কিনছে ১৫০-২০০টাকায়। স্থানীয়  প্রশাসন কতৃক বারংবার অভিযান চালিয়ে জরিমানা আদায় ও প্রতিরোধের চেষ্টা করা হলেও অসাধু ফার্মেসী ব্যবসায়ী ব্লাকে কিংবা সংশ্লিষ্ট কোম্পানির রিপ্রেজেনটেটিভ এর যোগসাজশে বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ সহ যুবসমাজের হাতে এই সিনটা তুলে দিয়ে প্রতিনিয়ত আসক্তদের ধংস আর মৃত্যুর দিকে ধাবিত করছে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য