জলঢাকায় সাংবাদিকদের কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য করায় সপ্রাবি সহকারি শিক্ষকের বিরুদ্ধে অভিযোগ


নিজেস্ব প্রতিবেদকঃ

সাংবাদিকদের সাথে কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য ও গ্রাম পুলিশকে লাঞ্চিত করায় নীলফামারী জলঢাকায় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের এক সহকারি শিক্ষকের বিরুদ্ধে উপজেলা শিক্ষা অফিসার বরাবর লিখিত অভিযোগ দৈনিক গণমুক্তি পত্রিকার জেলা প্রতিনিধি আব্দুল মালেক। তিনি দৈনিক গণমুক্তি পত্রিকা ছাড়াও আইপি চ্যানেল পল্লী টিভি ও অনলাইন চ্যানেল হেমন্ত টিভিসহ কয়েকটি অনলাইন পোটালে নীলফামারী জেলা প্রতিনিধি হিসেবে সুনামের সাথে দায়িত্ব পালন করে আসছেন। 

সোমবার দুপুরে উপজেলার কৈমারী ইউনিয়নের মৌজা শৌলমারী আলশিয়া পাড়া চরভরট সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক ও উক্ত প্রতিষ্ঠানের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য গাজিয়ার রহমানের বিরুদ্ধে উপজেলা শিক্ষা অফিসার বরাবর লিখিত অভিযোগ করেন। অভিযোগের প্রেক্ষিতে জানা যায়, বিদ্যালয়ের জমি দখলে নিয়ে চাষাবাদ করা ও প্রতিষ্ঠানে লাগানো বিভিন্ন প্রজাতির গাছ কেটে উজাড় করার অভিযোগে উক্ত প্রতিষ্ঠানে গেলে তাদেরকে বিভিন্ন ভাষায় গালমন্দ করে। যার ফলে তারা তথ্য সংগ্রহ করতে না পারায় সংবাদ প্রকাশ করতে ব্যর্থ হয়। 

বিশ্বস্ত সূত্রে একই অভিযোগের ভিত্তিত্বে গত ০৬ ফেব্রুয়ারী দুপুরে বিদ্যালয়টিতে সরেজমিনে যান, জেলা প্রতিনিধি আব্দুল মালেক ও দৈনিক গণমুক্তি পত্রিকার উপজেলা প্রতিনিধি রবিউল ইসলাম রাজ। সাংবাদিকদের উপস্থিতি টের পেয়ে ঘটনা স্থলে যান সহকারী শিক্ষক গাজিয়ার রহমান ও তার লোকজন। এসময় ওই শিক্ষক সাংবাদিকদের উপর চড়াও হন, এবং স্থানীয় সহিদুল ইসলাম নামের একজন গ্রাম পুলিশকে লাঞ্চিত করেন। শিক্ষকদের কাছ থেকে শিক্ষা গ্রহন করে শিক্ষার্থীরা একদিন দেশ ও জাতি গঠনির গুরুপ্তপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। 

সেখানে একজন শিক্ষকের এমন আচরন পুরো শিক্ষক সমাজকে কলঙ্খিত করেছে। সেই অভিযুক্ত শিক্ষকের বিচার চেয়ে ওই ভুক্তভোগী সাংবাদিক উপজেলা শিক্ষা অফিসার বরাবর লিখিত অভিযোগ করেছে। যার অনুলিপি, বিভাগীয় কর্মকর্তা, জেলা প্রশাসক, জেলা শিক্ষা অফিসার ও উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে দিয়েছেন। এ ব্যাপারে জেলা শিক্ষা অফিসার মোঃ নবেজ উদ্দিন সরকার জানান, একজন শিক্ষকের এরকম আচরন করা ঠিক হয়নি। অভিযোগের অনুলিপি পেয়েছি তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য