নীলফামারী-সৈয়দপুর সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত-১ আহত-১১


আব্দুল মালেক, বিশেষ প্রতিনিধিঃ

নীলফামারী সৈয়দপুর সড়কে ইপিজেড’র শ্রমিক বহনকারী অটোবাইকের সাথে একটি চেয়ার কোচের মুখোমুখি সংঘর্ষে ১জন নিহত ও ১১জন আহত হয়েছে। গুরুতর আহত ৩ জনকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ও ৮ জনকে নীলফামারী জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

আজ শনিবার সকালে ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা একটি নৈশ কোচের সাথে কামারপাড়া এলাকায় ইপিজেড’র শ্রমিক বহনকারী অটোবাইকের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে গুরুতর আহতদের মধ্যে হাসপাতালে নেয়ার পথে সনিক কোম্পানীর শ্রমিক মশিউর রহমান মারা যায়। তিনি সদরের কানিয়ালখাতা গ্রামের আব্দুস সাত্তারের ছেলে।

নীলফামারী জেনারেল হাসপাতালের আবাশিক মেডিকেল অফিসার ডা. অমল রায় জানান, গুরুতর আহত শ্রমিকদের রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে উন্নত চিকিৎসার জন্য পাঠানো হয়েছে। আশঙ্খাজনক শ্রমিকরা হলেন, কালীতলার ঈসমাইলের স্ত্র বেবী আখতার(২৮), শহিদুল ইসলামের মেয়ে শাহিনা আখতার(২৪) ও চান্দেরহাট বিশমুড়ির এন্তাজুল ইসলামের ছেলে ইলিয়াস আলী(২৮)কে। এবং অন্যান্য অপর ৮জন আহত শ্রমিকদের নীলফামারী জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। 

তারা হলেন, সওদাগর পাড়ার আজহারুল ইসলামের স্ত্রী বানু বেগম(৩০), কানিয়ালখাতার এমদাদুল হকের মেয়ে মাহমুদা(৩০), হাজিরুল ইসলামের স্ত্রী নুর নাহার বেগম(২৫), মাষ্টার পাড়ার আজাদের স্ত্রী রোমানা খাতুন(২৫), কানিয়ালখাতার সাবুর স্ত্রী মোসলেমা খাতুন(২৮), ইটাঁখোলার হযরত আলীর স্ত্রী জেরিন(২০), কালীতলার মনোরঞ্জনের ছেলে রতন(৩৪) ও মনিজুলের ছেলে সোহেল রানা(২৫)। 

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য