সৈয়দপুরে করোনার টিকা দেয়ার দ্বিতীয় দিনে ৫০ জনের টিকা গ্রহণ


মিজানুর রহমান মিলন  সৈয়দপুরঃ

সারাদেশে শুরু হওয়া কোভিড-১৯ টিকাদান কর্মসূচির দ্বিতীয় দিনে আজ সোমবার সৈয়দপুরে দুটি কেন্দ্রে ৫০জনকে টিকা প্রদান করা হয়েছে। সৈয়দপুর ১০০ শয্যা হাসপাতালে স্থাপিত টিকাদান কেন্দ্রে ২০ জন এবং সৈয়দপুর সেনানিবাসের সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালের টিকাদান কেন্দ্রে ৩০জনকে টিকা দেয়া হয়। 

সোমবার সৈয়দপুর ১০০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালে স্থাপিত টিকাদান কেন্দ্রে কোভিড-১৯ টিকা গ্রহন করেন বিশিষ্ট চক্ষু বিশেষজ্ঞ ও সার্জন (অবঃ) রোটারিয়ান প্রফেসর আলহাজ্ব ডা. মো. শরীফুল আলম চৌধুরী। এছাড়াও ওই কেন্দ্রে সাবেক ব্যাংকার মো. ইলিয়াছ হাসান, রেলওয়ে অবসরপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. মোজাহারুল ইসলাম, সৈয়দপুর উপজেলা স্যানিটারি ইন্সপেক্টর ও নিরাপদ খাদ্য পরিদর্শক মো. অহিদুল হকসহ অবসরপ্রাপ্ত সরকারি কর্মকতা- কর্মচারী, স্বাস্থ্যকর্মী, নার্স ও সাধারণ মানুষ টিকা গ্রহন করেছেন। 

এদিকে সৈয়দপুর সেনানিবাসের সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে টিকাগ্রহন  গ্রহন করেন সেনাবাহিনীর কর্মকর্তা ও সদস্যরা। সৈয়দপুর ১০০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালে স্থাপিত কেন্দ্রে টিকাদান কর্মসূচির সার্বিক তত্বাবধানপ রয়েছেন সৈয়দপুর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আবু মো. আলেমুল বাসার। এছাড়াও সৈয়দপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিক্যাল টেকনোলজিষ্ট মো. আবু তাহের সিদ্দিকীর নেতৃত্বে নার্স ও স্বেচ্ছাসেবকরা টিকাদান কর্মসূচি বাস্তরায়ন করছেন।   

সৈয়দপুর  উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আবু মো. আলেমুল বাশার জানান, আজ সোমবার ও গতকাল রবিবার দুই দিনে সৈয়দপুরে দুটি কেন্দ্রে ৭০জনকে কোভিড- ১৯ টিকা প্রদান করা হয়। প্রথম ধাপে সৈয়দপুর উপজেলায় ৮ হাজার ৬৫০ ডোজ টিকা বরাদ্দ মিলেছে। আর উল্লিখিত সংখ্যক টিকার ডোজ দিয়ে ৪ হাজার ৩২৫ জন ব্যক্তি টিকা পাবেন। টিকা প্রথম ডোজ দেয়ার এক মাস পরে দ্বিতীয় ডোজ প্রদান করা হবে। 

এ জন্য সৈয়দপুরে দুইটি টিকাদান কেন্দ্র স্থাপন করা হয়েছে। এর একটি হচ্ছে সৈয়দপুর সেনানিবাসের সম্মিলিত সামরিক হাসপাতাল ও সৈয়দপুর ১০০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতাল। সৈয়দপুর ১০০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালে স্থাপিত টিকাদান কেন্দ্রে ২টি বুথ স্থাপন করা হয়েছে।  একটি বুথে ২ জন নার্স ও ৪ জন স্বেচ্ছাসেবক রয়েছেন।  এ কেন্দ্রে  সকাল ১০টা থেকে বিকেলে ৩টা পর্যন্ত পর্যায়ক্রমে সম্মূখসারির যোদ্ধাসহ নিবন্ধনকারীদের মাঝে টিকা দেওয়ার কার্যক্রম চলবে। 

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য