সৈয়দপুরে বীরাঙ্গনাদের মাঝে কম্বল দিল অপরাজয় বাংলা ফাউন্ডেশন


মিজানুর রহমান মিলন সৈয়দপুরঃ

নীলফামারীর সৈয়দপুরে বীরাঙ্গনাদের মাঝে কম্বল বিতরণ করলো ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অপরাজেয় বাংলা ফাউন্ডেশন। সংগঠনটির বীরাঙ্গনা সহায়তা কার্যক্রমের আওতায় ওইসব কম্বল বিতরণ করা হয়। আজ  রবিবার সকালে শহরের মিস্ত্রীপাড়া বাইপাস সড়কস্থ বীরমুক্তিযোদ্ধা মো. ইউনুছ আলী’র বাসভবনে ওই কম্বল বিতরণ করা হয়। 

সংগঠনটির  নীলফামারী জেলা সমন্বয়কারী এবং বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ড ডোমার উপজেলা শাখার সভাপতি লেখক ও গবেষক মো. আল-আমিন রহমান বীরাঙ্গনাদের হাতে ওই কম্বল তুলে দেন। এ সময় সৈয়দপুর উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কমান্ডের সাবেক কমান্ডার মুক্তিযোদ্ধা মো. ইউনুছ আলী, সৈয়দপুর প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক তোফাজ্জল হোসেন লুতু ও সাংবাদিক নজির হোসেন নজুসহ অন্যরা উপস্থিত ছিলেন। 

অনুষ্ঠানে উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের ১৩ জন বীরাঙ্গনার মাঝে কম্বল বিতরণ করা হয়। অপারেজয় বাংলা ফাউন্ডেশনের নীলফামারী জেলা সমন্বয়কারী মো.আল-আমিন রহমান জানান, এর আগে তাদের সংগঠনের পক্ষ থেকে বীরাঙ্গনা সহায়তা কার্যক্রমের অধীনে জেলার অন্যান্য উপজেলার বীরাঙ্গনাদের মাঝে কম্বল বিতরণ করা হয়েছে। জেলায় ৩৬ জন বীরঙ্গনার মাঝে কম্বল বিতরন করা হয়েছে।  

কম্বল বিতরণ অনুষ্ঠানে উপজেলার কামারপুকুর ইউনিয়নের আইসঢাল হিন্দুপাড়ার বীরাঙ্গনা কিরণ বালা শীল আক্ষেপ করে বলেন, ’৭১ এর মহান মুক্তিযুদ্ধে আমার মতো দুই লাখ মা-বোন তাদের জীবনের সবচেয়ে মূল্যবান সম্পদ সম্ভ্রম হারিয়েছেন। অথচ আজ দেশ স্বাধীনতা লাভের দীর্ঘ ৪৯ বছরের বীরাঙ্গনাদের রাষ্ট্রীয়ভাবে স্বীকৃতি  দেয়া হয়নি অদ্যাবধি। 

বীরাঙ্গনাদের নামে প্রকাশ করা হয়নি কোন রকম গেজেট। আজ আমরা বীরাঙ্গনারা সমাজের প্রতিটি ক্ষেত্রে চরম অবহেলিত ও উপেক্ষিত। সমাজের সবাই আমাদের বাঁকা চোখে দেখেন। আমরা সরকারি কোন রকম সাহায্য সহায়তা পাই না। তিনি অবিলম্বে মুক্তিযোদ্ধাদের ন্যায় বীরাঙ্গনাদেরও রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতি দিয়ে সরকারি সকল সুযোগ-সুবিধা দেয়ার দাবি জানান।  

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য