দ্বিতীয় ধাপের পৌর নির্বাচনে দিনাজপুর জেলার তিনটি পৌরসভায় চলছে ভোটগ্রহন


শিমুল, দিনাজপুর সদর প্রতিনিধিঃ

দ্বিতীয় ধাপের পৌর নির্বাচনে আজ শনিবার দিনাজপুর জেলার তিনটি পৌরসভায় চলছে ভোটগ্রহন। জেলার দিনাজপুর পৌরসভা ও বিরামপুর পৌরসভায় ভোটগ্রহন অনুষ্ঠিত হচ্ছে গোপন ব্যালটের মাধ্যমে এবং বীরগঞ্জ পৌরসভার ভোটগ্রহন অনুষ্ঠিত হচ্ছে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন-ইভিএম এর মাধ্যমে। 

দিনাজপুরের তিনটি পৌরসভার মোট এক লাখ ৮৩ হাজার ৯৬ জন ভোটারের জন্য ৭৪ টি কেন্দ্রে এই ভোটগ্রহন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। দিনাজপুর সদর উপজেলা নির্বাচন অফিসার ও সকারী রিটার্নিং অফিসার মোঃ জায়েদ ইসবে আবুল ফজল জানান, দিনাজপুর পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে ৫ জন, সংরক্ষিত আসনের কাউন্সিলর পদে ১৮ জন ও সাধারণ আসনের কাউন্সিলর পদে ৬৪ প্রার্থীসহ মোট ৮৭ জন প্রার্থী নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে। 

এরমধ্যে দিনাজপুর সদরের পৌরসভায় মেয়র পদে ৫ জন প্রতিদ্বিন্দ্বি প্রার্থী হলেন-বর্তমান মেয়র সৈয়দ জাহাঙ্গীর আলম (বিএনপি), রাশেদ পারভেজ (আওয়ামীলীগ), মোঃ মেহেরুল ইসলাম (কমিউিনিষ্ট পাটি), আহম্মেদ শফি রুবেল (জাতীয় পার্টি) ও মোঃ হাবিবুর রহমান রানা (ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ)।

সংরক্ষিত আসনের কাউন্সিলর পদে প্রতিদ্বিন্দ্বি ১৮ জন প্রার্থীর মধ্যে ১,২ ৩নং ওয়ার্ডের-৬ জন প্রার্থী হলেন-রোকেয়া বেগম লাইজু, মলিভিয়া পারলিন, মোছাঃ ইসমিনা বেগম, মোছাঃ হাসিনা বেগম, জাহানারা খানম ও মোছাঃ সুলতানা পুতুল। ৪, ৫ ও ৬নং ওয়ার্ডের ৫ জন প্রার্থী হলেন-রিনা রায়, মোছাঃ মাহমুদা খাতুন, মোছাঃ পারভীন, মোছাঃ আফরোজা রহমান মালা ও মাকসুদা পারভীন মিনা। ৭, ৮ ও ৯নং ওয়ার্ডের ৩ জন প্রার্থী হলেন-মোছাঃ তাসমিন আরা, মোছাঃ শাহিন সুলতানা বিউটি ও মোছাঃ ফিরোজা আক্তার। ১০, ১১ ও ১২নং ওয়ার্ডের ৪ জন প্রার্থী হলেন-মোছাঃ মাজতুরা বেগম পুতুল, মোছাঃ সায়েকা বেগম, নিলুফা ইয়াসমিন ও  শিউলি বেগম।

অপরদিকে দিনাজপুর পৌসভার সাধারণ আসনের কাউন্সিলর পদে প্রতিদ্বিন্দ্বি ৬৪ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে। এর মধ্যে ১নং ওয়ার্ডে ৮ জন প্রার্থী হলেন-একেএম নওশাদ ফরাদ, মোঃ মনোয়ার হোসেন, রবিউল ইসলাম রবি, মোঃ আব্দুল কুদ্দুস, মোঃ আরিফুল ইসলাম ডলার, মোঃ জুলফিকার আলী স্বপন, নবাব সিরাজ উদ-দৌলা ও শাহরিয়ার ফরহাদ লিমন। ২নং ওয়ার্ডে ৫ জন প্রার্থী হলেন-কাজী আশরাফউজ্জামান বাবু, মোঃ রায়হান আলী খান তাজ, মোঃ মোস্তফা কামাল মুক্তি বাবু, মোঃ মাহবুব আলম নিশার ও মোঃ মাসুদ রানা চৌধুরী। ৩নং ওয়ার্ডে ৪ জন প্রার্থী হলেন-মোঃ আব্দুল্লাহ, মোঃ শাহজাহান নভেল, সঞ্জয় কুমার দাস ও জিয়াউর রহমান নওশাদ। ৪নং ওয়ার্ডে ৬ জন প্রার্থী হলেন-মোক্তার হোসেন, মোঃ জাবির হোসেন, মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ, মোঃ মিজানুর রহমান, মোঃ জনিউর রহমান ও মোঃ আব্দুল হানিফ দিলন। 

৫নং ওয়ার্ডে ৫ জন প্রার্থী হলেন-মোঃ মনিরুল ইসলাম বুলু, মোঃ আরমান হাবীব, একেএম মাসুদুল ইসলাম, আফসানা আফরোজ ইমু ও মোঃ মাহবুবুল আলম। ৬নং ওয়ার্ডে ৫ জন প্রার্থী হলেন-সৈয়দ শাহজাহান হোসেন, মোঃ জাহাঙ্গীর আলম, মোঃ আব্দুল কুদ্দুস আকাশ, মোঃ ফয়সাল মাসুদ ও মোঃ আব্দুল মান্নান সরকার। ৭নং ওয়ার্ডে ২ জন প্রার্থী হলেন-মোঃ রেহাতুল ইসলাম ও শরিফুল আলম। ৮নং ওয়ার্ডে ৯জন প্রার্থী হলেন-মোঃ নুর আলম শেখ, মোঃ হাবিবুল হক তুষার, মোঃ মতিবুর রহমান বিপ্লব, কাজী আকবর হোসেন অরেঞ্জ, তোফায়েল আহমেদ জুয়েল, 

মোঃ আসিফ ইকবাল পরাগ, মোঃ বেলাল হোসেন, মোঃ ফজলে রাব্বি ও মোঃ আহসান হাবিব। ৯নং ওয়ার্ডে ৩ জন প্রার্থী হলেন-মোঃ ইদি আমিন ফ্রান্সিস, মোঃ আবু তৈয়ব আলী দুলাল ও মোঃ রফিকুল ইসলাম রফিক। ১০নং ওয়ার্ডে ৯ জন প্রার্থী হলেন-মোঃ মিঠুন, মোঃ কবিরুল ইসলাম জুয়েল, বেগম রীনা পোদ্দার, মোঃ আল মামুন রশিদ, মোঃ সিদ্দারাতুল ইসলাম বাবু, মোঃ একরাম হোসেন, মোঃ সেলিম, এমডি লিটন ও মোঃ আরিফ। ১১নং ওয়ার্ডে ৫ জন প্রার্থী হলেন-সৈয়দ সায়েম হোসেন, মোঃ শাহাদত হোসেন, মোঃ মুসা মানিক, মোঃ সানোয়ার হোসেন সরকার, আবুল কালাম আজাদ ও মোঃ এমদাদুল হক মিলন এবং ১২নং ওয়ার্ডে ৪ জন প্রার্থী হলেন-মুরাদ আহম্মেদ, মোঃ ওয়াসিকুর রায়হান ও আশরাফুল আলম রমজান। 

তিনটি পৌরসভার ৭৪ টি কেন্দ্রের মধ্যে ২৮টি কেন্দ্রকে ঝুকিপুর্ণ হিসেবে চিহ্নিত করেছে নিবাচন কমিশন। আর তিনটি পৌরসভায় সুষ্ঠু ও শান্তিপুর্ণভাবে ভোটগ্রহনের জন্য দেড় হাজারেরও বেশী আইনশৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে। এছাড়াও স্ট্রাইকিং ফোর্স হিসেবে বিভিন্ন কেন্দ্রে টহল দিচ্ছে বিজিবি ও র‌্যাব। 

উল্লেখ্য, তিনটি পৌরসভায় মেয়র, সাধারন কাউন্সিলর ও সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদে প্রতিদ্বন্দীতা করছেন ১৯৮ জন প্রার্থী। এদের মধ্যে দিনাজপুর পৌরসভায় ৮৭ জন, বীরগঞ্জ পৌরসভায় ৫৯ জন এবং বিরামপুর পৌরসভায় প্রতিদ্বন্দীতা করছেন ৫২ জন প্রার্থী।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য