শীতের রাতে দুস্থ্যদের মাঝে কম্বল বিতরণ করলেন বিরামপুরের ইউএনও


বিশেষ প্রতিনিধিঃ 

আসছে শীতকাল। আর এই শীতের আগমনীতে সন্ধ্যা হলেই নামছে শীত, বইছে শীতল হাওয়া। রাত যত গভীর হয়, শীতের প্রকোপও ততই বাড়তে থাকে। এতে বিশেষত অধিক কষ্টে রাত যাপন করে ছিন্নমূল সাধারণ মানুষেরা। আর এসব ছিন্নমূল দুস্থ্য শীতার্ত মানুষদের পাশে গিয়ে প্রধানমন্ত্রীর উপহার স্বরুপ তাদের গায়ে শীতের কম্বল জড়িয়ে দিলেন দিনাজপুর জেলার বিরামপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পরিমল কুমার সরকার।

শুক্রবার দিবাগত রাতে বিরামপুর রেলওয়ে স্টেশন প্লাটফর্মে হঠাৎ করেই কম্বল নিয়ে হাজির হন তিনি। এমন খবরে দ্রুত রেলস্টেশন গিয়ে দেখা যায়, প্লাটফর্মে ঘুমন্ত ব্যক্তিদের শীত মোচনের জন্য তাদের গায়ে নিজ হাতে কম্বল জড়িয়ে দিচ্ছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা। পরে স্টেশন চত্ত্বরের আশেপাশে খোঁজ করে দুস্থ্য-অসহায় ব্যক্তিদের খুঁজে বের করে তাদের মাঝে কম্বল বিতরণ করেন। এসময় প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা কাউছার আলী ও জনস্বাস্থ্য প্রকৌশলী আব্দুল লতিফ তার সাথে উপস্থিত ছিলেন।

রেলস্টেশন থেকে বেরিয়ে শহরের ঢাকামোড়, কলেজ বাজার, রেলগেট এলাকা ও পূর্বপাড়া মোড় সহ মহাসড়কের উভয় পাশে ছিন্নমূল দুস্থ্য ব্যক্তিদের খুঁজে বের করে তাদের মাঝে কম্বল বিতরণ করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পরিমল কুমার সরকার। পরিশেষে একটি এতিমখানায় ছাত্রদের শীত নিবারণের জন্য সেখানেও তিনি কম্বল বিতরণ করেন।

কম্বল পেয়ে পূর্বপাড়া মহল্লার খতেজা বিবির বৃদ্ধা মা আবেগে আত্নহারা হয়ে বলেন, শীত আসে আর যায় বাহে, হারা কোন কম্বল পায়না। এবার হামার প্রধানমন্ত্রী কম্বল দিয়ে পাঠাইছে হামার কাছত। এনকা ইউএনও সব জাগাত থাক হারা এই দুয়া’ই করি।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পরিমল কুমার সরকার জানান, শীতে যেন কোন ছিন্নমূল মানুষ কষ্ট না পান সে ব্যাপারে উপজেলা প্রশাসন সর্বদা সচেষ্ট রয়েছে। পুরো শীত জুড়েই এমন মানবিক কর্মকান্ড চলমান থাকবে বলে তিনি জানান।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য