সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম খুঁজে দিল নীলফামারীর বীর মুক্তিযোদ্ধা বরদা শংকরকে, তার অবস্থা সংকটাপন্ন


নীলফামারী প্রতিনিধিঃ 

অজ্ঞান পাটির খপ্পরে পড়ে নীলফামারীর বীর মুক্তিযোদ্ধা বরদা শংকর রায় (৬৮) জীবন মৃর্ত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছেন। তার অবস্থা সংকটা পন্ন। তার পরিবার জানায় রংপুরে আলু বিক্রির টাকা আনতে যান গত ১৮ই নভেম্বর তারপর থেকে তার মোবাইল ফোন বন্ধ। 

সারাদিন খুজাখুজির পরেও কোন খোজ না পেয়ে দিশে হারা যখন তার পরিবার হঠাৎ রাত নয়টার সময় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে একটি পোস্ট ভেসে আসে তাতে লেখা ও ছবি ছিল নীলফামারী রাবেয়ার মোড়ে অচেতন অবস্থায় এক ব্যক্তিকে পাওয়া গিয়েছে তাকে  সৈয়দপুর ১০০ শয্যা হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। 

যদি কেউ এই ব্যক্তিকে চিনে থাকেন তাহলে জরুরী ভিত্তিতে যোগাযোগ করুন বা সন্ধ্যান দিন এই পোস্ট দেখার পর তার পরিবার সৈয়দপুর ১০০ শয্যা হাসপাতালে গিয়ে উন্নত চিকিৎসার জন্য রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসে বিগত তিন দিন পার হতে চললেও বীর মুক্তিযোদ্ধা বরদা শংকর রায় এর জ্ঞান ফিরেনি তার অবস্থা সংকটাপ্ন বলে জানিয়েছেন চিকিৎসক। 

তার বাড়ী নীলফামারী শহরের ফুড অফিস পাড়ায়। এ বিষয়ে গতকাল ২০ নভেম্বর রাতে তার ছেলে সন্দীপ কুমার রায় সুমন বাদী হয়ে থানায় অভিয়োগ দায়ের করেন। তবে তার পরিবারের একটি সুত্র জানায় তারাগঞ্জে কতিপয় ব্যক্তির সাথে দীর্ঘদিন ধরে জমি জমা সংক্রান্ত বিরোধ চলছিল। 

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য